৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘এমন কদর্য মন নিয়ে শিল্পী হওয়া যায়?’ নাম না করেই পরমাকে তোপ স্বস্তিকার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 2, 2020 4:54 pm|    Updated: May 2, 2020 4:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “গান গাওয়ার জন্য যেমন সুরেলা কণ্ঠের প্রয়োজন, নাচ করার জন্যও তেমনি স্লিম ফিট চেহারা থাকা বাঞ্ছনীয়”, শিল্পী পরমা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এমন মন্তব্য নিয়েই জোর শোরগোল শুরু হয়েছে। পরমা এখানেই থেমে থাকেননি, তিনি এও বলেছেন “থপ থপ করে চর্বিওয়ালা থলথলে বডি হাত নাড়লে সেটা আর যাই হোক খুব কুৎসিত লাগে দেখতে।” বর্তমান প্রজন্মের নারীরা যেখানে সব ক্ষেত্রে বৈষম্যের কথা বলে, চেহারার গড়নের থেকেও যাদের কাছে শিল্পীসত্ত্বার কদর বেশি, এই সময়ের প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে পরমার মন্তব্যকে তাই নেটিজেনদের একাংশই মেনে নিতে পারছেন না। ‘পোশাকি’ আধুনিকমনস্ক ব্যক্তিদেরও মহিলাদের চেহারা নিয়ে রোগা-মোটা, বেঁটে কিংবা লম্বা, এধরনের মন্তব্য করতে দেখা যায় প্রায়ই। পরমার এই মন্তব্যেও অনেকে ‘বডি শেমিং’ খুঁজে পেয়েছেন। একজন শিল্পীর কাছে থেকে এই ধরনের মন্তব্য মোটেই কাম্য নয়! এমনটাই মত তাদের। শরীরের গড়ন নিয়ে পরমার মন্তব্যের প্রেক্ষিতে এবার মুখ খুললেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

স্বস্তিকা বরাবরই সোজাসাপটা, স্পষ্টবাদী। যে কোনও বিষয় নিয়েই প্রায় সরব হতে দেখা যায় তাঁকে। এবারেও একেবারে রাখঢাক না করে সোশ্যাল মিডিয়াতেই একহাত নিলেন পরমা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। পোস্টে নামোল্লেখ না করেই স্বস্তিকা বললেন, “এই সময়ে দাঁড়িয়েও এগুলো হচ্ছে! এই সময়টা গুরুত্বপূর্ণ, যেখানে চারদিকে এত হাহাকার, এতো মৃত্যু, অবসাদ, মানুষ একা আটকে পড়ে আছে, বাবা মায়ের মৃত্যুর সময়েও মানুষ পাশে থাকতে পারছে না, নিজেদের খুশি করা কিংবা তার চেয়েও বড় কথা, উন্মাদ হওয়া থেকে বাঁচার জন্যে সোশ্যাল মিডিয়ার দ্বারস্থ হচ্ছে…। সেখানে এত বিদ্বেষ কীসের? একে অপরের প্রতি এত রাগ, অপমান কেন? এরা শিল্পী? এমন ছোট কদর্য মন নিয়ে শিল্পী হওয়া যায়? কী লজ্জার!

পরমার ডিলিট করা পোস্টের স্ক্রিনশট

[আরও পড়ুন: শুধুমাত্র ইরফানের জন্য, লকডাউনের মাঝেও রাস্তায় নেমে অভিনেতার ছবি আঁকলেন শিল্পী]

প্রসঙ্গত, স্বস্তিকাকেও একাধিকবার ‘বডি শেমিং’-এর শিকার হতে হয়েছে। সে প্রসঙ্গও তিনি তুলেছেন পোস্টে। অভিনেত্রীর কথায়, সারা পৃথিবীতে যখন মহিলারা নিজের শরীর নিয়ে মন্তব্যের বিরুদ্ধে লড়ছে, হাড়গিলে, রোগা, থপথপে মোটা… লড়াইটা যখন সবার, আমারও বটে! আমার চেহারা মোটেও হিরোইনসুলভ নয়। সারাটাক্ষণ ‘ঝুলে যাওয়া বুক’ আর ‘হাতির মত পশ্চাৎদেশ’ নিয়ে কটুক্তি শুনতে হয়, আমি আমার শিল্পসত্ত্বা দিয়ে নিজেকে আলাদা করে রাখি। আমি যেটা পারি সেটা আমি এমন পারদর্শীতার সঙ্গে করি যে আমার চেহারা সেখানে তুচ্ছ হয়ে যায়৷ যে যেটা পারে সে সেটা মন দিয়ে করুক। যে যেটা পারে না তারাও করুক, আগে মুক্তি পাই সবাই তারপর বাকিটা দেখা যাবে।” ‘বডি শেমিং’-এর বিরুদ্ধে মুখো খোলার সময় যে এসে গিয়েছে, সেকথাও নিজের পোস্টে মনে করিয়ে দিলেন স্বস্তিকা।

এরপর পরমা বন্দোপাধ্যায় পোস্টটি সরিয়ে নেন। এবং এই শোরগোলের পর পোস্টের সপক্ষে একটি ভিডিও বার্তাও পোস্ট করেন। নিজের প্রোফাইল ব্লক করেন অন্যান্য ফেসবুক ইউজারদের জন্য। বোঝাই যাচ্ছে যে, তিনি এমন মন্তব্য করে ঠিক করেননি এবং সোশ্যাল মিডিয়ার সমালোচনা থেকে মুখ ফেরাতে চাইছেন। কিন্তু এই ভিডিওতেও নেটিজেনদের একাংশ বরং রুষ্টই হয়েছেন।

[আরও পড়ুন: ‘এক দেশ, এক আওয়াজ’, করোনা যোদ্ধাদের কুর্নিশ জানিয়ে ১৪টি ভাষায় গান সংগীতশিল্পীদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement