Advertisement
Advertisement
রূপাঞ্জনা

টলিউডেও #MeToo, অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ রূপাঞ্জনার

কী বলছেন অরিন্দম শীল?

Tollywood actress Rupanjana Mitra slams renowned director Arindam Sil
Published by: Sandipta Bhanja
  • Posted:January 11, 2020 7:27 pm
  • Updated:January 11, 2020 7:27 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউডের পর টলিউডেও #MeToo অভিযোগ। ফাঁকা অফিসে অশালীন আচরণ করা হয়েছিল। চিত্রনাট্য পড়ে শোনানোর অছিলায় স্পর্শ করা হয়েছিল শরীর। খ্যাতনামা পরিচালক অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মৈত্র।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের কাছে রূপাঞ্জনা তাঁর এই অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। যেখানে তিনি অভিযোগ তুলেছেন, অরিন্দম শীল তাঁর ‘ভূমিকন্যা’ ধারাবাহিকের চিত্রনাট্য পড়ে শোনানোর জন্য অভিনেত্রীকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। কথামতো নির্ধারিত সময়ে পরিচালকের ইস্টার্ন বাইপাসের ধারের অফিসে পৌঁছেও যান। সেখানেই অভিনেত্রীকে আলিঙ্গন করেই নাকি কদর্য ইঙ্গিত করেছিলেন অরিন্দম। এদিকে অফিস ফাঁকা দেখে অস্বস্তিতে পড়েছিলেন রূপাঞ্জনা। প্রোডাকশনের ছেলেকে চা দিতে বলেই সেখান থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন পরিচালক। সেখানে কথোপকথনের মাঝেই কাউচে বসতে গিয়ে পিঠে-মাথায় হাত বুলিয়ে দেওয়ার মতো অভিযোগও পরিচালক অরিন্দমের বিরুদ্ধে তুলেছেন রূপাঞ্জনা। পরে অভিনেত্রী সোজা চিত্রনাট্যের কথা বলায় পরিচালক সরে গিয়েছিলেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: জলবায়ু পরিবর্তন আন্দোলনে শামিল হয়ে গ্রেপ্তার ‘জোকার’ অভিনেতা জোয়াকিন ফিনিক্স ]

রূপাঞ্জনা অবশ্য এও জানিয়েছেন যে, সে ঘটনার মিনিট পাঁচেকের মধ্যে অরিন্দম শীলের স্ত্রী সেখানে এসে উপস্থিত হন। তিনিও রূপাঞ্জনাকে দেখে অপ্রস্তুত হয়ে পড়েছিলেন।কিন্তু এতদিন পর এসব অভিযোগ কেন তুললেন রূপাঞ্জনা? অভিনেত্রীর কথায়, যে চ্যানেলে ‘ভূমিকন্যা’ সম্প্রচারিত হত, সেই চ্যানেলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকার কারণেই তিনি মুখ বন্ধ করেছিলেন।  পরিচালক অরিন্দম শীল অবশ্য জানিয়েছেন, রূপাঞ্জনার এসব অভিযোগ মিথ্যে। তাঁর কথায়, ‘পলিটিক্যাল স্টান্ট’। রূপাঞ্জনা তাঁর দীর্ঘদিনের বন্ধু হয়েও মিথ্যে কথা বলছেন।

Advertisement

ফেসবুকে রূপাঞ্জনা একটি পোস্টে লিখেছেন, “এটা কোনও খবর নয়, এটি অভিনেত্রী জীবনের আক্ষেপ যে এমন একটি ঘটনা আমার সঙ্গে ঘটেছিল। খারাপ লাগছে এটা ভেবে বহু কষ্টে নিজের একটা জায়গা তৈরি করেছি এই ইন্ডাস্ট্রিতে, সেই জায়গাটাই কিছু মানুষ ক্ষুদ্র করে দিতে চেয়েছিল। চুপ করে ছিলাম, নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করছিলাম। তারপর যেদিন পারলাম, সেদিন সকলের সামনে তুলে ধরলাম মনের কষ্টের এক টুকরোকে। মনে হয়েছিল, এটা যদি না পারি তাহলে ভবিষ্যৎ আমাকে প্রশ্ন করবে কেন একটা সুন্দর সমাজ তৈরি করতে পারিনি আমরা? হাজার স্বপ্ন নিয়ে যে মেয়েরা অভিনেত্রী হতে চায় তাদের কেন আমি শেখাব না কোনটা ভাল আর মন্দ! শ্বাপদস‌ংকুল সমাজের কাছ থেকে ওদের সাবধান করে দেওয়াই তো আমার কাজ।”

[আরও পড়ুন: নতুন সম্পর্কে জড়াতেই ‘প্রাক্তন’ উর্বশীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্লক করলেন ঋষভ পন্থ! ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ