৭ শ্রাবণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ঠাকুরমা-দিদিমার আলনায় তুলে রাখা কাপড় নতুন প্রাণ পাচ্ছে পশ্চিমি চেহারায়। লিখছেন সোহিনী সেন।

ভারতীয় সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, জীবনযাত্রার যে-আকড়, সেটাকেই উদযাপন করছে দেশ-বিদেশের একাধিক নামী-দামি ব্র‌্যান্ড। ভারতীয় ফ্যাব্রিকে তৈরি ওয়েস্টার্ন ওয়্যার সম্প্রতি ফ্যাশন বিশ্বে ‘দ্য নিউ ইন থিং’। ঠাকুরমা-দিদিমার আলনায় তুলে রাখা কাপড়ই নতুন করে প্রাণ পাচ্ছে পশ্চিমি অবয়বে। পাচ্ছে গ্লোবাল স্যালুটেশন। এই মুহূর্তে দেশি আর গ্লোবালের এই মিলন সগর্বে শাসন করছে ওয়েস্টার্ন ওয়্যারের সাম্রাজ্য। থাকল এমনই পাঁচ ভারতীয় ফ্যাব্রিক এবং সেগুলোয় তৈরি ওয়েস্টার্ন ওয়্যারের হালহদিশ।

খাদি

গান্ধীজির স্মৃতি ও স্বদেশি ঐতিহ্যবাহী এই ফ্যাব্রিক আন্তর্জাতিক ফ্যাশন দুনিয়ায় অতি পরিচিত। ‘খাদি গ্রামোদ্যোগ ভবন’, ‘ফ্যাব ইন্ডিয়া’, ‘বাইলুম’-এর খাদির ওয়েস্টার্ন ওয়্যারের চাহিদা বরাবরই তুঙ্গে। নজর কাড়ছে ‘দেশি টিউড’, ‘গডউইট খাদি’, ‘রেড সিস্টার ব্লু’, ‘নর্থ ইস্ট প্রজেক্ট’, ‘খাদিজি’-র মতো একাধিক দেশীয় স্টার্ট-আপও। এদের তৈরি খাদির শর্টস, স্কার্ট, কিমোনো, ট্রেঞ্চ কোট, বটমস, ট্রাউজার্স, ব্লেজার, জ্যাকেট, গাউন, এমনকী, বিচ কভার-আপও খ্যাতনামা গ্লোবাল ব্র‌্যান্ডগুলিকে টেক্কা দিচ্ছে।

কাঁথা স্টিচ

ট্রেন্ডসেটার হিসাবে কাঁথা স্টিচ বরাবর বাংলার ফ্যাশন জগতে শো-স্টপার। দেশীয় বাজারেও বিপুল চাহিদা। সম্প্রতি গ্লোবাল মার্কেটেও ছড়ি ঘোরাচ্ছে খাস বাংলার এই ফ্যাবরিক। প্রথম শ্রেণির আন্তর্জাতিক ফরাসি ফ্যাশন ব্র‌্যান্ড ‘এহর্‌মেস’ তাদের আইকনিক ‘ব্রাইদস দে গালা’ স্কার্ফে বাংলার কাঁথা স্টিচ ব্যবহার করেছে। র’ সিল্কের উপর বাংলার নিজস্ব সাদাসিধে মোটিফ- আর তাই-ই হয়ে উঠেছে স্কার্ফের ইউএসপি। বিপুল চাহিদা কাঁথা স্টিচে তৈরি এহর্‌মেসের আরও একটি স্কার্ফ: ‘ক্যাহ্‌ কাঁথা’-রও।

[ আরও পড়ুন: ‘আই লাভ হিম লাইক ক্রেজি’! বর নিখিলকে নিয়ে মনের দরজা খুললেন নুসরত ]

বাঁধনি

হোয়াট হ্যাপেনস হোয়েন রাজস্থান মিটস রোম? দ্য আনসার ইজ: রবের্তো কাভাল্লি।
আজ্ঞে। বালির শহরের বাঁধনি সংস্কৃতিকে আপন করে নিয়েছে রোম। ইতালি তথা বিশ্বের নামকরা ফ্যাশন ব্র্যান্ড রবের্তো কাভাল্লি। ২০১৬-র ‘ভোগ ইন্ডিয়া’-র ‘প্রজেক্ট রেনেসাঁ’-এ জায়গা করে নিয়েছিল এই ব্র‌্যান্ডের একটি ড্রেস।

ইক্কত

শতাব্দী-প্রাচীন ফ্যাব্রিক। তৈরি হত মধ্য এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন অংশে। ভারতে হায়দরাবাদের পোচামপল্লি, গুজরাটে মিললেও ইক্কতের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ওড়িশা। ওয়েস্টার্ন ওয়্যারে ইদানীং জাঁকিয়ে বসেছে ইক্কতের রাজত্ব। ‘ট্রান্সলেট’, ‘হাউস অফ কিদওয়া’, ‘ব্রাসটাকস’, ‘নরব্ল্যাকনরহোয়াইট’-এর মতো বেশ কিছু ওয়েস্টার্ন ওয়্যার প্রস্তুতকারী ভারতীয় ব্র‌্যান্ড ইক্কতকে তুলে ধরছে বিশ্বের দরবারে। দেশীয় ঐতিহ্য-সমন্বিত মোটিফ, আর মিনিম্যাল ডিজাইন- তাতেই বাজিমাত ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটে। আন্তর্জাতিক ইতালীয় ব্র‌্যান্ড ‘পিটার পিলত্তঁ’-ও ইক্কতের উপর কাজ শুরু করেছে।

চান্দেরি

বৈদিক যুগ থেকেই নাকি ভারতের নারী-পুরুষ চান্দেরি নির্মিত পোশাক ব্যবহার করে আসছে। লোককথা ও বিশ্বাস, শ্রীকৃষ্ণর জাতিতুতো ভাই শিশুপাল চান্দেরির হোতা। মধ্যপ্রদেশের চান্দেরি নামক স্থানের এই ফ্যাবরিক একদা কেবল শাড়ি আর ঘাঘরা-চোলির বাজার মাত করত। বড়জোর পাঞ্জাবি-কুর্তা। এখন ওয়েস্টার্ন ওয়্যার সাম্রাজ্যেও রীতিমতো দাপটের সঙ্গে রাজ শুরু করেছে চান্দেরি।

[ আরও পড়ুন: মেক-আপের সঙ্গে চুলের সাজেও আনুন বাহার, রইল টিপস ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং