২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

পুজোয় টলিউডের এই তারকাদের কী প্ল্যান জানেন?

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: September 23, 2019 6:40 pm|    Updated: September 23, 2019 9:23 pm

An Images

টলিউডের তারকারা ১০ দিন আগে পুজোর ডায়েরি শেয়ার করলেন ‘কফিহাউস’- সঙ্গে।

নুসরত জাহান জৈন

NUSRAT-JAHAN

বিয়ের পর আমাদের প্রথম পুজো। অবশ্যই নিখিল আর আমার কাছে এটা একটা স্পেশ্যাল ফিলিং। তবে আমি কোনওবারই পুজোর সময় কলকাতা ছেড়ে অন্য কোথাও যাই না। এবারেও কলকাতাতেই থাকব। এ ছাড়া পুজোর মধ্যে আমি আমার সাংসদীয় এলাকা বসিরহাটেও যাব। যখন বালিগঞ্জে থাকতাম তখন ওখানকার কমপ্লেক্সে অঞ্জলি দিতাম। এবার যেহেতু শ্বশুরবাড়ি আলিপুরে তাই সুরুচি সংঘ বা চেতলা কোথাও অঞ্জলি দেব। এছাড়া আড্ডা, ফুচকা, বিরিয়ানি তো আছেই। আর হ্যাঁ, নবমীতে মিমি নেমন্তন্ন করেছে। সেদিন ওর বাড়িতে খাওয়াদাওয়া আর আড্ডা।

আবির চট্টোপাধ্যায়

বাকি বছরগুলোর মতো এ বছর পুজোতেও আমি কলকাতায় থাকব। খুব রিলিভড লাগছে যে এবার পুজোয় আমার কোনও ছবি রিলিজ নেই। পুজোয় ফিল্ম রিলিজ থাকলে অ্যাড্রিনালিন রাশ হয় ঠিকই। কিন্তু তার পেছনে প্রচুর সময় আর এনার্জি চলে যায়। ফিল্মের বক্স অফিস পারফরম্যান্সের টেনশনও থাকে। এবার পুজোয় আমার কয়েকটা ব্র‌্যান্ড প্রোমোশন আছে। কয়েকটা ইভেন্টে যাব বিচারক হিসেবে। এগুলো আগে থেকেই ঠিক করা।

জয়া আহসান

আমার কাছে ইদ মানে বাংলাদেশ। দুর্গাপুজো মানে কলকাতা। আগেও আমি পুজোতে কলকাতায় থেকেছি। কিন্তু সে বার ঠাকুরও দেখেছি আবার শুটিংও করেছি। এ বছর আমি একেবারে ফ্রি। তাই দুর্গাপুজো নিয়ে ভীষণ এক্সাইটেড। অনেকগুলো ঢাকাই শাড়ি নিয়ে চলে এসেছি। মসলিন, তাঁত, সিল্ক। সব উপহারে পেয়েছি। সবকটাই পরব। একটাও মিস করব না। প্রতিদিন নতুন শাড়ি। পুজো পরিক্রমাও রয়েছে, তাই চুটিয়ে প্যান্ডেল হপিং করব। দুর্গাপুজো বাঙালির প্রাণের উৎসব। আর আমার প্রাণ এপার-ওপার দুই বাংলা জুড়ে রয়েছে।

শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়

না, পুজোয় আমি কলকাতা ছেড়ে কোথাও যাচ্ছি না। সারা বছর তো শুধু কাজই করি, এই সময়টা কলকাতায় বাড়ির লোকের সঙ্গে না কাটালে একটা মারও বাইরে পড়বে না (হাসি)। তাই এই সময়টা পুরো ফ্যামিলি টাইম। আর পুজোর সময় শান্তিনিকেতন থেকে আমার দিদিরা আসছে, শ্বশুরবাড়ির লোকজনও মুম্বই থেকে এসে গেছেন। অলরেডি আড্ডা, খাওয়াদাওয়া শুরু হয়ে গেছে বাড়িতে। আর আমার তো এখনও পুজোর সময় নতুন জামা পেতে দারুণ লাগে। আমি আজও বাচ্চাদের মতো গুনি। গত বছর ১৯টা হয়েছিল, এ বছর এখনও অবধি ৭টা।

শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়

 

পুরো পুজোতে আমি আর রাজ কলকাতাতেই আছি। আরবানার পুজোতে আড্ডা মারব, ঘুরব। তবে দশমীর সকালে চলে যাচ্ছি কেনিয়া। আমরা দু’জনেই ওয়াইল্ডলাইফ খুব ভালবাসি। আর মাসাইমারার বিশ্ববিখ্যাত জঙ্গলের কথা কে না জানে!

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement