২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’, সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবির একের পর এক পোস্টার। আর সোমবার মুক্তি পেল ছবির ট্রেলার। ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যু রহস্যকে ঘিরেই তৈরি হয়েছে ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’-এর প্লট। ১৯৬৬ সালের ১০ জানুয়ারি। লালবাহাদুর শাস্ত্রী সই করেন ‘তাসখন্দ’ চুক্তি। আর এই সই করার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর। যেই মৃত্যুরহস্য আজও জানা যায়নি। কী ছিল সেই মৃত্যু কারণ? বিষক্রিয়ায় মৃত্যু ঘটেছিল তাঁর না হার্ট অ্যাটাকে? না এর নেপথ্যে রয়েছে অন্য কোনও রাজনৈতিক চক্রান্ত? এসব প্রশ্নের উত্তর আজও মেলেনি। তাঁর পরিবার তথা গোটা দেশের কাছে গোপন করা হয় লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যুরহস্য। কেন এবং কীভাবে? এই রহস্যের উন্মোচনই ঘটবে ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’-এর হাত ধরে। ট্রেলারে অন্তত সেই ঈঙ্গিতই মিলল। সেলুলয়েডে এই রহস্যের উন্মোচন ঘটবে পরিচালক বিবেক রঞ্জন অগ্নিহোত্রীর হাত ধরে। ট্রেলারজুড়ে শুধু একটাই প্রশ্ন লালবাহাদুর শাস্ত্রীর মৃত্যুরহস্যের কিনারা কেন হয়নি! ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’-এর ট্রেলার যে সেই ‘জয় জওয়ান, জয় কিষান’ মন্ত্রের হোতার মৃত্যুরহস্য আরও একবার দেশবাসীর মনে উসকে দিল, তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: রাজনীতিতে নামছেন সঞ্জয় দত্ত! জল্পনার মধ্যেই মুখ খুললেন অভিনেতা]

ছবিতে শ্যামসুন্দর ত্রিপাঠীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। নাসিরুদ্দিন শাহকে দেখা যাবে পিকেআর নটরাজনের ভূমিকায়। রাগিনী ফুলের চরিত্রে শ্বেতা বসু প্রসাদ এবং ইন্দিরা জোশেফ রায়ের চরিত্রে মন্দিরা বেদিকে দেখা যাবে। এছাড়াও ছবিতে রয়েছেন রাজেশ শর্মা, বিনয় পাঠক, পঙ্কজ ত্রিপাঠী, পল্লবী জোশী, প্রশান্ত গুপ্তা প্রমুখ। ছবির চরিত্রদের লুক প্রকাশ পেয়েছে শনিবার।

প্রসঙ্গত, শাস্ত্রীর মৃত্যুর পর তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী গুলজারিলাল নন্দার দ্বারস্থ হয়ে ময়নাতদন্তের দাবি জানান তাঁর পরিবারের লোকেরা। কিন্তু, অজ্ঞাত কারণে সেই দাবি নাকচ করে দেন গুলজারিলাল। তারপর থেকেই শুরু হয় নানা জল্পনা। মৃত্যুর পূর্বে শাস্ত্রীকে বিষ দেওয়া হয়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল সোভিয়েত গোয়েন্দা সংস্থা কেজিবি। গ্রেপ্তার করা হয় শাস্ত্রীর রুশ খানসামা আহমেদ সাতারভকে। এমনকী তাঁর দেহ দেশে ফিরলে দেখা যায় নীল হয়ে গিয়েছে শাস্ত্রীর সর্বাঙ্গ। এরপর রহস্যজনকভাবে গাড়ি চাপা পড়ে মারা যান শাস্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও তাঁর দুই ছেলেও। এছাড়া, শাস্ত্রীর মৃত্যুর অন্যতম সন্দেহভাজন জান মহম্মদকে রাষ্ট্রপতি ভবনে কাজে নিয়োগ করা হয়। সব মিলিয়ে আজও রহস্যে মোড়া লালবাহাদুর শাস্ত্রী মৃত্যু। সেই রহস্যেই আলোকপাত করতে আসছে ‘দ্য তাসখন্দ ফাইলস’। সেই রহস্যের পর্দান্মোচন ঘটবে এপ্রিলের ১২ তারিখে।

[আরও পড়ুন:‘ভবিষ্যতের ভূত’-এর প্রদর্শন নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং