BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  রবিবার ৩১ মে ২০২০ 

Advertisement

এখনই গ্রেপ্তার করা যাবে না রবার্ট বঢরাকে, ইডিকে জানিয়ে দিল আদালত

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 1, 2019 8:59 pm|    Updated: April 17, 2019 1:08 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের মুখে বড়সড় স্বস্তি পেলেন গান্ধী পরিবারের জামাতা রবার্ট বঢরা। ভোটের আগে গ্রেপ্তার হওয়ার সম্ভাবনা নেই তাঁর। রবার্ট বঢরার অগ্রিম জামিন মঞ্জুর করেছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত। ইডিকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এখনই গ্রেপ্তার করা যাবে না গান্ধী পরিবারের জামাতাকে।

[আরও পড়ুন: ফেক অ্যাকাউন্টে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক! কংগ্রেসের সঙ্গে যুক্ত বহু পেজ বন্ধ করল ফেসবুক]

বিদেশে সম্পত্তি এবং একাধিক জমি কেলেঙ্কারির অভিযোগে নিয়মিত রবার্ট বঢরাকে জেরা করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। বেশ কিছুদিন ধরেই বঢরার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুললেও তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে এই প্রথমবার। তদন্ত চলাকালীন প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর স্বামীকে নিজেদের হেফাজতে চেয়েছিল ইডি। এদিকে, সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত অগ্রিম জামিনের আবেদন করেছিলেন বঢরা ও তাঁর সহযোগী মনোজ অরোরা। সোমবার দু’জনেরই আগাম জামিন মঞ্জুর করেছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

তবে জামিনের জন্য, বেশ কয়েকটি শর্ত মানতে হবে রবার্ট ও তাঁর সহযোগীকে। দু’জনকেই পাঁচ লক্ষ টাকার বন্ডে জামিন দেওয়া হয়েছে। গ্রেপ্তার না হলেও, বিদেশ যাত্রার উপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। অনুমতি ছাড়া দু’জনের কেউ বিদেশ যেতে পারবেন না। তাদের যে কোনও সময় তদন্তের কারণে ডাকা হলে সহযোগিতা করতে হবে। কোনও রকম নথি বা প্রমাণ নষ্ট করার চেষ্টা করতে পারবেন না।

[আরও পড়ুন: জওয়ানদের ‘মোদিজি কি সেনা’ বলে মন্তব্য, বিতর্কে যোগী আদিত্যনাথ]

ভোটের মুখে এ খবরে নিঃসন্দেহে স্বস্তি পাবে কংগ্রেস। সেই সঙ্গে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার তত্ত্বেও শান দিতে পারবে তাঁরা।দীর্ঘদিন ধরেই কংগ্রেস অভিযোগ করে আসছে, দল এবং গান্ধী পরিবারকে বদনাম করার জন্যই মিথ্যে অভিযোগ আনা হচ্ছে রবার্টের বিরুদ্ধে। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী নিজে অবশ্য বলেছেন, রবার্ট বঢরা বা চিদম্বরমদের বিরুদ্ধে যত খুশি তদন্ত করতে পারে ইডি। কিন্তু, রাফালে মামলায় মোদিকেও তদন্তের মুখোমুখি হতে হবে। এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বঢরাকে সমর্থন করেছেন ইতিমধ্যে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানান, “রবার্ট বঢরাকে জেরা করার উদ্দেশ্য একটাই- বিরোধীদের জোট গড়তে না দেওয়া।” 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement