BREAKING NEWS

৬ আশ্বিন  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

১১ বিধায়কের ইস্তফা, পতনের মুখে কর্ণাটকের জোট সরকার

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 6, 2019 5:30 pm|    Updated: July 6, 2019 7:33 pm

11 MLAs from JDS-Congress resigned from Karnataka govt

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জল্পনা চলছিল দীর্ঘদিন ধরেই৷ এবার হয়ত পাকাপাকি ভাবে ছেদ পড়তে চলেছে কর্ণাটকের কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারের মধুচন্দ্রিমা পর্বে৷ কারণ, ইতিমধ্যে স্পিকারের অফিসে ইস্তফাপত্র জমা দিয়েছেন দু’দলের ১১ জন বিধায়ক৷ যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী এবং রাজ্যের কংগ্রেস নেতৃত্বের কপালে৷

[ আরও পড়ুন: বিতর্ক পিছনে ফেলে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই বায়ুসেনার হাতে আসছে রাফালে যুদ্ধবিমান]

জানা গিয়েছে, শনিবার দুপুরে বিধান সৌধে কর্ণাটকের স্পিকার কে আর রমেশ কুমারের কাছে ইস্তফাপত্র জমা দিতে যান আট বিধায়করা৷ যাদের মধ্যে ছিলেন কংগ্রেসের পাঁচ জন বিধায়ক রয়েছেন এবং জেডিএসের তিনজন বিধায়ক৷ কিন্তু স্পিকার না থাকা, মুখ্যমন্ত্রীর সচিবালয়ে সেই চিঠি জমা দিয়ে আসেন তাঁরা৷ সূত্রের খবর, কংগ্রেসের তরফে ইস্তফা দিয়েছেন রমেশ জারকিহোলি, বি সি পাতিল, মহেশ কুমাতাল্লি, প্রতাপগৌড়া পাটিল, শিবরাম হেব্বার ও সুব্বা রেড্ডি। এবং জেডিএসের তরফে ইস্তফা দিয়েছেন এইচ বিশ্বনাথ, নারায়ণ গৌড়া এবং কে গোপালাইয়া। যদিও স্পিকারের তরফে ১১ জনের ইস্তফার কথা জানান হয়েছে৷ কর্ণাটকের স্পিকার কে আর রমেশ কুমার জানান, ‘‘আমার অবর্তমানে ওনারা ইস্তফা দিতে এসেছিলেন৷ আমি অফিসে ইস্তফাগ্রহণ করতে বলি৷ এখন পর্যন্ত ১১ জন বিধায়ক ইস্তফা দিয়েছেন কাল ছুটি, সোমবার এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷’’

[ আরও পড়ুন: জ্বালানিতে বাড়তি সেস কি মূল্যবৃদ্ধির কারণ হবে? কী বলছেন অর্থনীতিবিদরা ]

কংগ্রেস সূত্রে খবর, চোখের সামনে দলের এই পতন দেখে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন কর্ণাটকের জলসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী ডি কে শিবকুমার৷ পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বললেও, সরকার পতনের চিন্তা যে কংগ্রেসকে তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে তা স্পষ্ট ফুটে উঠেছে তাঁর চোখে-মুখে৷ ইস্তফা দেওয়ার পর দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন প্রবীণ কংগ্রেস বিধায়ক রামালিঙ্গা রেড্ডি৷ দলের মধ্যে সঠিক মর্যাদা না পেয়েই, এই ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি৷ কংগ্রেস-জেডিএসের এই টানাপোড়েনের উপর যে তাঁরা লক্ষ্য রাখছেন তা বুঝিয়ে দিয়েছেন বিজেপি নেতা জিভিএল নরসিমারাও৷ দুই বিরোধী দলকে কটাক্ষ করে তিনি জানান, ‘‘কংগ্রেস-জেডিএসের এই রাজনৈতিক দ্বন্দ্বে অতিষ্ঠ রাজ্যের মানুষ৷ কেবল বিজেপি নয়, কর্ণাটকের সমস্ত মানুষ এই সমস্যার সমাধান চাইছেন৷’’ এখানেই শেষ নয়, আগামিদিন বিজেপি যে কর্ণাটকে সরকার গড়বে তাও জানান তিনি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×