BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মহারাষ্ট্রে কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরোনোর পরেই গ্রেপ্তার তবলিঘি জামাতের ২৯ জন সদস্য

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 19, 2020 2:59 pm|    Updated: April 19, 2020 2:59 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরোনোর পরেই গ্রেপ্তার করা হল তবলিঘি জামাতের ২৯ জন সদস্যকে। ধৃতদের মধ্যে ২৬ জন বিদেশি নাগরিকও রয়েছে। পর্যটন ভিসায় ভারতে এসে ধর্মীয় প্রচার ও লকডাউনের নিয়ম ভাঙার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। গতমাসে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজে আয়োজিত তবলিঘি জামাতের ধর্মীয় সমাবেশেও হাজির ছিল এরা। শুক্রবার রাতে মহারাষ্ট্রে আহমেদনগর থেকে গ্রেপ্তার করার পর স্থানীয় একটি আদালতে তোলা হয়। এরপর শনিবার ২৬ জন বিদেশিকে ২৪ তারিখ পর্যন্ত পুলিশ হেফাজত ও তিনজন ভারতীয়কে জামিন দেন বিচারক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মার্চে দিল্লির নিজামুদ্দিনে হওয়া তবলিঘি জামাত (Tablighi Jamaat) -এর সমাবেশ যোগ দিয়েছিল। সেখান থেকে ফিরে মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর, নেভাসা ও জামখেড় এলাকার বিভিন্ন মসজিদে লুকিয়ে ছিল তবলিঘি জামাতের ৩৫ জন সদস্য। বিষয়টি জানতে পারার পরেই ওই মসজিদগুলিতে তল্লাশি চালিয়ে তাদের আটক করে পুলিশ। ছজন করোনা আক্রান্তকে হাসপাতালে পাঠানোর পাশাপাশি বাকিদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। পাশাপাশি ওই ২৯ জনের নামে গত ৫ এপ্রিল মহারাষ্ট্র কোভিড-১৯ (Covid-19) নিয়ন্ত্রণ আইন, মহামারি রোধ আইন, জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা আইন ও বিদেশ নাগরিক আইনের বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করা হয়। আর শুক্রবার কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরোতেই তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: পোষ্য সারমেয়দের ভক্ষণের বদলা, বিষ দিয়ে দুই চিতাবাঘকে হত্যা করল গ্রামবাসীরা! ]

পুলিশ সূত্রে খবর, ৩৫ জনের মধ্যে তিনজন ভারতীয় ও তিনজন বিদেশির শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া গিয়েছিল। তাই তাদের হাসপাতালে ভরতি করার পাশাপাশি বাকি ২৯ জনকে সরকারি কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছিল। শুক্রবার তার সময়সীমা শেষ হয়। এরপরই শনিবার তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধৃত বিদেশিদের মধ্যে আইভরি কোস্টের আটজন, ইন্দোনেশিয়া, ব্রুনেই ও দিবুতির চারজন, তানজানিয়ার তিনজন আর ইরান, বেনিন ও ঘানার একজন করে নাগরিক রয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিয়ে করার আশায় লকডাউনে ৮৫০ কিমি রাস্তা সাইকেলে পাড়ি, কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ঠাঁই যুবকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement