Advertisement
Advertisement
Chhattisgarh Encounter

ছত্তিশগড়ের জঙ্গলে রুদ্ধশ্বাস গুলির লড়াই, নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে খতম ৭ মাওবাদী

অভিযান এখনও চলছে বলে জানা গিয়েছে।

7 naxalites killed in encounter with security personnel in Chhattisgarh

প্রতীকী ছবি

Published by: Biswadip Dey
  • Posted:May 23, 2024 9:05 pm
  • Updated:May 24, 2024 3:21 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছত্তিশগড়ে (Chhattisgarh) ফের বড় সাফল্য নিরাপত্তা বাহিনীর। নারায়ণপুর ও বিজাপুর জেলার সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অভিযান চালিয়ে খতম (Encounter) ৭ মাওবাদী। এলাকায় গুলির লড়াই এখনও চলছে বলে জানা গিয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে সাতটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়েছে।

জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল এগারোটা নাগাদ ওই অঞ্চলে নিরাপত্তা বাহিনী ও মাওবাদীদের মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়। নারায়ণপুরের পুলিশ সুপারিটেন্ডেন্ট প্রভাত কুমার জানিয়েছেন, আগে থেকেই খবর ছিল ওই এলাকায় মাওবাদীরা (Naxal) আত্মগোপন করে রয়েছে। আর সেই খবরের ভিত্তিতেই শুরু হয় তল্লাশি। পরে যা রূপ নেয় গুলির লড়াইয়ে। অভিযানের বিস্তারিত তথ্য পরে পাওয়া যাবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নেশার ঘোরে শাবল দিয়ে বৃদ্ধকে খুন! বনগাঁয় যুবককে বেঁধে মার গ্রামবাসীদের]

প্রসঙ্গত, মাওবাদী অধ্যুষিত ছত্তিশগড় রাজ্যে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে লাগাতার অভিযান চালাচ্ছে নিরাপত্তাবাহিনী। যার সুফলও মিলেছে। এবছর এই নিয়ে ১১২ জন নকশাল নিকেশ হয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে। এর মধ্যে গত ৩০ এপ্রিল নারায়ণপুর ও কাঙ্কের জেলার সীমান্তে তিন মহিলা-সহ ১০ মাওবাদী প্রাণ হারায় এনকাউন্টারে। তারও আগে ১৬ এপ্রিল কাঙ্কেরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে মারা যায় ২৯ মাওবাদী। এর আগে গত ১৩ মে মহারাষ্ট্রেনিরাপত্তাবাহিনীর অভিযানে মৃত্যু হয় ৩ জনের। মহারাষ্ট্র পুলিশের তরফে জানা যায়, মৃতরা নিষিদ্ধ সংগঠন সিপিআই (মাওবাদী)-এর সশস্ত্র বাহিনী পিএলজিএ (পিপলস লিবারেশন গেরিলা আর্মি)-এর সহযোগী পেরিমিলি দলমের সক্রিয় সদস্য। কয়েকদিন যেতে না যেতেই এবার ফের ছত্তিশগড়ে সাফল্য পেল বাহিনী। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: রিজেন্ট পার্কের আবাসন থেকে বৃহন্নলার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ