BREAKING NEWS

১৪ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৮ মে ২০২০ 

Advertisement

উত্তরপ্রদেশে দুর্গাপুজোর বিসর্জনের শোভাযাত্রায় হামলা, গ্রেপ্তার ৮ মুসলিম যুবক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 10, 2019 8:13 pm|    Updated: October 10, 2019 8:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুর্গাপুজোর শোভাযাত্রায় ইট ছোঁড়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হল আটজন। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বলরামপুরে। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে স্থানীয় এলাকায়। জোরে গান বাজানোর ফলে গন্ডগোলটির সূত্রপাত হয়ে বলে দাবি পুলিশের।

[আরও পড়ুন: স্বামী ও স্ত্রীর মারামারির জের, লাঠির ঘায়ে মৃত ৫ মাসের সন্তান]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত মঙ্গলবার দুর্গা প্রতিমার বিসর্জন উপলক্ষে একটি শোভাযাত্রা বের করেছিলেন বলরামপুরের হারকাডি গ্রামের বাসিন্দারা। শোভাযাত্রাটি সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় আচমকা স্থানীয় কিছু যুবকের সঙ্গে পুজো উদ্যোক্তাদের ঝামেলা লাগে। এর জেরে ওই যুবকরা শোভাযাত্রা ও দুর্গা প্রতিমা লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি ইট ছুঁড়তে থাকে। চোখের নিমিষে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় গোটা এলাকা। ওই এলাকার প্রায় সব বাসিন্দা বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে দুর্গা প্রতিমার দিকে ইট ছুঁড়তে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছান স্থানীয় থানার পুলিশকর্মীরা। তাঁদের অক্লান্ত চেষ্টায় দীর্ঘক্ষণ বাদে নিয়ন্ত্রণ আসে পরিস্থিতি। শোভাযাত্রা ইট ছোঁড়ার অভিযোগে আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই ঘটনায় চারজন জখম হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হওয়ার পরে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে দেশজুড়ে।

এপ্রসঙ্গে বলরামপুরের পুলিশ সুপার দেবরঞ্জন ভার্মা জানান, সংখ্যালঘু এলাকা দিয়ে যাওয়ার সময় শোভাযাত্রার মাইক বন্ধ রাখতে বলেছিল স্থানীয় কিছু যুবক। কিন্তু, তাতে গুরুত্ব দেয়নি শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়া মানুষজন। এর জেরে একটি মসজিদের মাথা থেকে শোভাযাত্রা লক্ষ্য করে পাথর ছুঁড়তে শুরু করে কিছু মানুষ। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে বিশাল গন্ডগোল শুরু হয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চারজন জখম ব্যক্তিকে উদ্ধার করার পাশাপাশি পাথর ও ইট ছোঁড়ার অভিযোগে আটজনকে গ্রেপ্তার করে। মোট ২৪ জনের নামে অভিযোগ দায়ের হলেও বাকিদের এখনও গ্রেপ্তার করা হয়নি। প্রাথমিকভাবে এটা পূর্বপরিকল্পিত ঘটনা নয় বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন:আর্থিক তছরূপের অভিযোগ, কর্ণাটকের প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে আয়কর হানা]

উত্তরপ্রদেশের দেবীপাটান রেঞ্জের ডিআইজি রাকেশ সিং জানান, সংখ্যালঘু এলাকা দিয়ে শোভাযাত্রা যাওয়ার সময় জোরে গান বাজছে বলে কিছু যুবক অভিযোগ করে। মাইক ও বক্স বন্ধ রাখার দাবি জানায়। তারপরও শোভাযাত্রায় থাকা ডিজে বক্স খুব জোরে বাজচ্ছিল বলে অভিযোগ। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের বচসাও শুরু। আর এরপরই শোভাযাত্রা লক্ষ্য করে ইট ও পাথর ছুঁড়তে আরম্ভ করে ওই এলাকায় বসবাসকারী সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কিছু মানুষ। পরে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত কয়েকমাস ধরেই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা এরাজ্যে দুর্গাপুজো করতে দেওয়া হয় না বলে অভিযোগ করছিলেন। কিন্ত, এই এবার পশ্চিমবঙ্গের দুর্গাপুজোয় বড় কোনও অশান্তির খবর পাওয়া যায়নি। বিঘ্নিত হয়নি শান্তি-শৃঙ্খলাও। উলটে যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে দুর্গা প্রতিমার শোভাযাত্রায় ইট ও পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ঘটল। শুধু তাই নয়, এই ঘটনা জোরে গান বাজানোর জেরে হয়েছে বলেই প্রাথমিকভাবে জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে। যার জেরে ক্ষুব্ধ হয়েছে হিন্দুত্ববাদীরাও।

তবে শুধু উত্তরপ্রদেশেই নয়, দুর্গা প্রতিমা বিসর্জন নিয়ে অশান্তি হয়েছে গুজরাটেও। মঙ্গলবার গুজরাটের রাজকোটে বসবাসকারী বাঙালিদের প্রতিমা বিসর্জন দিতে বাধা দেয় প্রশাসন। এমনকী অনুমতি নেওয়া থাকলেও নির্দিষ্ট সময়ের আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয় সাউন্ড বক্স ।  গত ২৫ বছর ধরে যে ঘাটে বিসর্জন দেওয়া সেখানে বিসর্জন দিতেও বারণ করা হয়। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement