Advertisement
Advertisement

Breaking News

Bata

হাতব্যাগের জন্য অতিরিক্ত ৩ টাকা চেয়ে ৯০০০ টাকা ক্ষতিপূরণ দিল Bata

মুখ পুড়ল জুতো প্রস্তুতকারক ওই কোম্পানির।

Bata India fined Rs 9k for asking customer to pay Rs 3 for carry bag
Published by: Sulaya Singha
  • Posted:April 15, 2019 9:38 am
  • Updated:April 15, 2019 9:38 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাতব্যাগ লাগবে? তাহলে আরও পাঁচ টাকা অতিরিক্ত দিন। নামজাদা দোকানে শপিং করতে গিয়ে এমন অভিজ্ঞতা কম-বেশি সকলেরই হয়েছে। পছন্দের জিনিস কেনার পর বিলিং কাউন্টারে গেলেই হাতব্যাগ বা প্যাকেটের জন্য অতিরিক্ত টাকা চাওয়া হয়। ঠিক একইভাবে জুতো কিনতে গিয়ে কাগজের হাতব্যাগের জন্য ৩ টাকা দিতে হয়েছিল চণ্ডীগড়ের বাসিন্দা দীনেশ প্রসাদ রাতুরিকে। বিষয়টা তাঁর একেবারেই পছন্দ হয়নি। রেগে গিয়ে ‘বাটা ইন্ডিয়া’র নামে নালিশ ঠুকে দেন ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরে। তারপর বড়সড় জরিমানা দিতে হল জুতো প্রস্তুতকারক ওই কোম্পানিকে।

[আরও পড়ুন: আজ মধ্যরাত থেকে ধর্মঘটে জেট এয়ারওয়েজের ১১০০ পাইলট]

ত্রুটিপূর্ণ পরিষেবার জন্য ন’হাজার টাকা জরিমানা দিতে হল ‘বাটা ইন্ডিয়া’কে! ৫ ফেব্রুয়ারি সেক্টর ২২-এর বাটা শোরুম থেকে একজোড়া জুতো কেনেন দীনেশ। জুতোর দাম ৩৯৯ টাকা। কিন্তু কাগজের ব্যাগের জন্য লাগবে আরও তিন টাকা। যে বিষয়টি ভাল লাগেনি দীনেশের। এরপরই সরাসরি ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরে অভিযোগ জানান তিনি। ব্যাগের জন্য দেওয়া বাড়তি তিন টাকা ফেরত চান। সেই সঙ্গে ক্ষতিপূরণও দাবি করেন। তাঁর যুক্তি, নিজেদের ব্র্যান্ডের নাম লেখা ব্যাগের জন্যই টাকা নিচ্ছে বাটা। দীনেশ প্রসাদের পক্ষেই রায় দেয় ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তর। রায়ে বলা হয়, জিনিস বিক্রি করার সময় তা বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য গ্রাহককে ব্যাগ জোগানোর দায়িত্বও দোকানেরই। ব্যাগের জন্য নেওয়া বাড়তি তিন টাকা দীনেশ প্রসাদকে ফেরত দিতে হবে। আইনি প্রক্রিয়ার খরচ বাবদ দিতে হবে এক হাজার টাকা। আর মানসিকভাবে হেনস্তা করার জন্য আরও তিন হাজার টাকা দিতে বলা হয়। পাশাপাশি, রাজ্য ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরে জমা দিতে বলা হয় পাঁচ হাজার টাকা। মোট ন’হাজার।

Advertisement

[আরও পড়ুন: মোদিকে ভোট দিতে অস্ট্রেলিয়ায় মোটা মাইনের চাকরি ছেড়ে দেশে ফিরলেন যুবক]

ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তরের এমন রায়ে খুশি চণ্ডীগড়ের ওই ক্রেতা। এ ঘটনার পর অন্যান্য কোম্পানিগুলি, যারা ক্রেতাদের থেকে প্যাকেটের জন্য অতিরিক্ত মূল্য চেয়ে নেয়, তাদেরও শিক্ষা হবে বলে আশা তাঁর। পরবর্তীকালে শপিং করার ক্ষেত্রে আপনিও সতর্ক থাকুন।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ