২ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

লাগাতার হিংসার অভিযোগ, ভোটের মাঝেই বারাকপুরে পুনর্নির্বাচনের দাবি বিজেপির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 6, 2019 1:18 pm|    Updated: May 6, 2019 1:18 pm

BJP demands repoll in Barrackpore loksabha constituency

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নজিরবিহীন। ভোট চলাকালীনই আস্ত একটা লোকসভা কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচনের দাবি বিজেপির। বাংলায় গণতন্ত্র নেই, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হারার ভয় পাচ্ছেন। তাই গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোট করাতে ভয় পাচ্ছেন। উলটে বারাকপুর জুড়ে ছাপ্পা ভোট হচ্ছে। সোমবার ভোট চলাকালীনই এই অভিযোগ তুললেন কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন বারাকপুর কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছে বিজেপি।

[আরও পড়ুন:  ভোটের কাজে ব্যস্ত, ফণী নিয়ে মোদির সঙ্গে বৈঠকে ‘না’ বাংলার আধিকারিকদের]

এদিন সকাল থেকেই দফায় দফায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বারাকপুর। একে অপরের বিরুদ্ধে অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগ তোলে তৃণমূল ও বিজেপি। বারাকপুরের মোহনপুরে বিজেপি সমর্থকদের ভোট দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং সেখানে গেলে তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কর্মীরা। এরপরই আক্রান্ত হন অর্জুন সিং। পুলিশের সঙ্গেও ধস্তাধস্তি করতে দেখা যায় তাঁকে। তৃণমূলের এক মহিলা কর্মীকে ধাক্কাও দেন তিনি। এদিকে, ধস্তাধস্তিতে মুখ থেকে রক্ত বেরোতে দেখা যায় অর্জুনের। এখানেই শেষ নয়, এরপর মোহনপুরের ওই বুথে ঢুকতে গেলেও তাঁকে বাধা দেয় অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি।

মোহনপুরের পাশাপাশি নৈহাটির বিজয়নগর গার্লস হাই স্কুলের বুথে বিক্ষোভের মুখে পড়েন বারাকপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং। তাঁকে ঘিরে ‘গো-ব্যাক’, ‘ভাগ অর্জুন ভাগ’ স্লোগান দিতে থাকেন তৃণমূল কর্মীরা। জগদ্দলেও বিজেপি প্রার্থীকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল প্রার্থীরা। এছাড়াও একাধিক জায়গায় অর্জুনকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয়। জগদ্দলের একটি বুথে ছাপ্পাভোটের অভিযোগও ওঠে। সেখানে নিজে দৌঁড়ে গিয়ে ছাপ্পাবাজকে ধরার চেষ্টা করেন বিজেপি প্রার্থী।

[আরও পড়ুন: আমেঠিতে রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে বুথ দখল করানোর অভিযোগ স্মৃতি ইরানির]

এরপরই বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফে বারাকপুরে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর অভিযোগ করছেন, “আমাদের প্রার্থীকে খুব খারাপভাবে পিটিয়েছে। পোলিং বুথে এজেন্টদের ঢুকতে দিচ্ছে না। ইভিএমের কাছে গিয়ে তৃণমূল নেতারা নিজেরাই বোতাম টিপে দিচ্ছে। বাংলাজুড়ে জোরদার রিগিং চলছে। মমতা হারছেন, তৃণমূল হারছে, তাই গণতন্ত্রে ভরসা নেই। ছাপ্পা দিয়ে ভোট করানো হচ্ছে। আজ যা হয়েছে তা গণতান্ত্রিক ভোট নয়। গণতন্ত্রের নামে রিগিং পোল হয়েছে।” ভোট চলাকালীনই পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছে বিজেপি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement