BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মোদির জয়ের দিন জঙ্গি দমনেও সাফল্য, নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে নিহত জাকির মুসা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 23, 2019 11:53 pm|    Updated: May 23, 2019 11:53 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীরে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে খতম হল কুখ্যাত জঙ্গি জাকির মুসা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার ত্রাল সেক্টরের দাদসারা গ্রামে। উপত্যকায় বিচ্ছিন্নতাবাদ, জেহাদের জন্য হাতে অস্ত্র তুলে নেওয়া সদ্য যুবক বুরহান ওয়ানি ২০১৬ সালে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে খতম হয়। জাকির মুসা তার সহযোগী ছিল।

বিশেষ সূত্রে খবর আসে, পুলওয়ামার ত্রাল সেক্টরের দাদসারা গ্রামে দু’দিন ধরে আত্মগোপন করে রয়েছে আনসার গজওয়াতুল হিন্দ জঙ্গিগোষ্ঠীর প্রধান মুসা ও তার এক সহযোগী। সেই খবরের উপর ভিত্তি করে বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রামটি ঘিরে ফেলেন রাষ্ট্রীয় রাইফেলস, স্পেশ্যাল অপারেশনাল গ্রুপ এবং সিআরপিএফ-এর জওয়ানরা। শুরু হয় তল্লাশি। সেসময় তাঁদের লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছোঁড়ে লুকিয়ে থাকা দুই জঙ্গি। পালটা জবাব দেন জওয়ানরাও। এর জেরে খতম হয় মুসা ও তার সহযোগী।

[আরও পড়ুন-‘নতুন ভারতের জনাদেশ’, দেশবাসীকে জয় উৎসর্গ করে প্রতিক্রিয়া মোদির]

সূত্রের খবর, নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে ওই জঙ্গিদের আত্মসমর্পণ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু, তা না করে জওয়ানদের লক্ষ্য গ্রেনেড ছোঁড়ে জঙ্গিরা। তখন বাধ্য হয়ে পালটা গুলি চালায় নিরাপত্তারক্ষীরা। এতেই খতম হয় জঙ্গিরা।

[আরও পড়ুন- ক্ষমতায় ফিরে টুইটার থেকে ‘চৌকিদার’ সরালেন মোদি অ্যান্ড কোং]

এই ঘটনার জেরে শুক্রবার উপত্যকার সমস্ত স্কুল ও কলেজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। এপ্রসঙ্গে কাশ্মীরের বিভাগীয় কমিশনার বশির আহমেদ খান বলেন, স্থানীয় এলাকার পরিস্থিতি বিচার করেই নিরাপত্তার স্বার্থেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে বৃহস্পতিবারই জাকির মুসাকে খতম করায় তা সেনাবাহিনীর তরফে মোদিকে জয়ের উপহার বলে মনে করা হচ্ছে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement