৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: ফের অশান্ত উপত্যকা। সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে আরও একবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল পুলওয়ামা। জঙ্গি নিকেশ করতে গিয়ে শহিদ হলেন ভারতীয় সেনার এক জওয়ান। তবে সংঘর্ষে তিন জঙ্গিও নিকেশ হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছেন আরও দুই জওয়ান ও এক সাধারণ নাগরিক। বৃহস্পতিবার সাতসকালে এই সংঘর্ষ আরও একবার উসকে দিন পুলওয়ামার বিস্ফোরণের সেই স্মৃতি।

বৃহস্পতিবার ভোর রাতে সংঘর্ষের সূত্রপাত। পুলওয়ামায় হামলার পর থেকে সেখানে নিরাপত্তা আঁটসাঁট করেছে পুলিশ ও সেনা। জঙ্গিদের বিষয়ে কোনও খবর এলেই শুরু হচ্ছে তল্লাশি অভিযান। তেমনই একটি খবর এসেছিল সেনার কাছে। খবর ছিল, পুলওয়ামার কাছেই কোনও এক জায়গায় গোপন ডেরায় লুকিয়ে রয়েছে কয়েকজন জঙ্গি। খবর পেয়েই তল্লাশির প্রস্তুতি শুরু করে সেনা। খবর যায় কাশ্মীর পুলিশের কাছেও। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে পুলওয়ামার ডালিপোরা এলাকায় তল্লাশি চালাতে শুরু করেন ভারতীয় সেনার জওয়ানরা। সঙ্গে সিআরপিএফ, কাশ্মীর পুলিশ, রাষ্ট্রীয় রাইফেল ও স্পেশ্যাল অপারেশন গ্রুপের সদস্যরাও ছিলেন। তল্লাশির সময়ই তাদের দিকে ছুটে আসে জঙ্গিদের গুলি। পালটা জবাব যায় এপক্ষ থেকেও। ভারতীয় সেনার গুলিতে নিকেশ হয় দুই জঙ্গি।

[ আরও পড়ুন: মণিশংকরের পর দিগ্বিজয়, প্রধানমন্ত্রীকে কুরুচিকর আক্রমণ কংগ্রেস নেতার ]

কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত এক জওয়ান জঙ্গিদের গুলিতে শহিদ হন। তাঁর দেহ এখনও সেনাঘাঁটিতে নিয়ে আসা সম্ভব হয়নি। ঘটনায় আরও দুই জওয়ান গুরুতর আহত হয়েছেন। সেনা-জঙ্গির এই লড়াইয়ে আহত হয়েছেন আরও এক সাধারণ নাগরিক। তাঁর নাম ইউনিস আহমেদ দার। ডালিপোরার বাসিন্দা জালাল দিনের ছেলে তিনি। তাঁর উরুতে বুলেট লাগে। প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে পুলওয়ামার একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন আপাতত সুস্থ রয়েছেন ইউনিস। তাঁর শারীরিক অবস্থা ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে।

পুলওয়ামার ওই এলাকায় এখনও তল্লাশি চলছে। মাঝেমধ্যেই শোনা যাচ্ছে গুলির আওয়াজ। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে কার্ফু। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট পরিষেবা।

[ আরও পড়ুন: স্নাতকের পোশাক পরে মোদির সভায় ‘পকোড়া’ বিক্রি পড়ুয়াদের ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং