BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ওষুধ যাচাইয়ের আগে Coronil-এর কোনও প্রচার নয়, পতঞ্জলিকে নোটিস ধরাল কেন্দ্র

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 23, 2020 8:00 pm|    Updated: June 23, 2020 8:11 pm

Centre asked Patanjali to stop promoting corona kit Coronil

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে বেশ ধুমধাম করেই করোনা বধের ওষুধ বাজারে আনার কথা ঘোষণা করেছিলেন বাবা রামদেব। কিন্তু ওষুধ প্রকাশ্যে আসার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কেন্দ্রের কোপে পড়ল পতঞ্জলি। আপাতত ওষুধের সমস্ত প্রচার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হল যোগগুরুর সংস্থাকে।

এদিন পতঞ্জলির তরফে জানানো হয়, COVID-19 রোধে প্রথম আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরি করে ফেলেছে তারা। তবে এটি প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করবে না। করোনা আক্রান্তকে সুস্থ করে তুলবে। ‘করোনিল ও শ্বাসরি’ নামের দুটি ওষুধ কোভিড রোগীদের উপর পরীক্ষা করেও দেখা হয়েছে। এই ওষুধ প্রয়োগে সুস্থতার পরিমাণ ১০০ শতাংশ বলে জানায় কোম্পানি। এমনকী বাবা রামদেব দাবি করেন, দীর্ঘ গবেষণার পরই এই ওষুধ তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। ইতিমধ্যেই করোনা রোগীর উপর পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে ওষুধটি। যার প্রমাণও তাঁদের কাছে আছে। তিন থেকে সাতদিনের মধ্যেই ১০০ শতাংশ সুস্থ হয়ে উঠবেন করোনা আক্রান্ত। কিন্তু পতঞ্জলির মুখের কথা মেনে নিতে রাজি নয় আয়ুশ মন্ত্রক। ওষুধ পরীক্ষা করে দেখা হবে।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে ২৪ ঘণ্টায় করোনাজয়ী ৫৩১ জন, সুস্থতার হার ৬২ শতাংশেরও বেশি]

এদিন আয়ুশ মন্ত্রকের তরফে একটি নোটিস জারি করে পতঞ্জলিকে ওই ওষুধের সমস্ত বিস্তারিত তথ্য জমা দিতে বলা হয়েছে। গবেষণাপত্র থেকে ইনস্টিটিউশনাল এথিক্স কমিটির ছাড়পত্র, ফলাফলের নথি- সবই চাওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে উত্তরাখণ্ড সরকারের কাছ থেকে এই ওষুধ বিক্রির লাইসেন্সের কাগজপত্রও চাওয়া হয়েছে। এই সমস্ত তথ্য খতিয়ে দেখবে কেন্দ্র। ততদিন পর্যন্ত পতঞ্জলিকে (Patanjali) করোনা বধকারী ওষুধ হিসেবে করোনিলের প্রচার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ সরকারের সবুজ সংকেত না এলে এ নিয়ে কোনও বিজ্ঞাপন বা প্রচার করতে পারবেন না রামদেবের সংস্থা।

আসলে বিশ্বজুড়ে করোনার ভ্যাকসিন এবং ওষুধ তৈরির চেষ্টা চলছে। অনেক দেশ ইতিমধ্যেই ওষুধ আবিষ্কার হয়ে গিয়েছে বলেও দাবি করেছে। স্বাভাবিকভাবেই সাধারণ মানুষের কাছে যা স্বস্তির খবর। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে এই স্পর্শকাতর বিষয়টি নিয়ে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে চাইছে না কেন্দ্র। সেই জন্যই গবেষণার আগে পতঞ্জলিকে এর প্রচার বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। এদিনই কোম্পানির সিইও আচার্য বালকৃষ্ণ জানিয়েছিলেন, ৫৪৫ টাকাতেই মিলবে এই ওষুধের একটি কিট। যা চলবে একমাস। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই পতঞ্জলির স্টোর থেকে পাওয়া যেত এই কিট। মানুষ যাতে বাড়ি বসেই ওষুধ অর্ডার করতে পারেন, তার জন্য একটি অ্যাপও আনার কথা ছিল পতঞ্জলির। কিন্তু আয়ুশ মন্ত্রকের নোটিসে বিশ বাঁও জলে করোনিলের ভবিষ্যৎ।

[আরও পড়ুন: ফের অসুস্থ সাধ্বী প্রজ্ঞা, পার্টি অফিসে অজ্ঞান হয়ে পড়ে গেলেন বিজেপি সাংসদ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে