Advertisement
Advertisement
Edible oils

পুজোর আগেই স্বস্তি আমজনতার! কেন্দ্রের নয়া সিদ্ধান্তে কমছে ভোজ্য তেলের দাম

গত একবছরে হু হু করে ভোজ্য তেলের দামবৃদ্ধিতে চাপ বাড়ছিল মধ্যবিত্তের উপর।

Centre cuts custom duties on edible oils to ease retail prices | Sangbad Pratidin
Published by: Abhisek Rakshit
  • Posted:September 13, 2021 10:27 am
  • Updated:September 13, 2021 10:27 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সামনেই পুজো। আর তার আগে কেন্দ্রের নয়া সিদ্ধান্তে কিছুটা হলেও স্বস্তি পেতে পারে সাধারণ মানুষ। এবার ভোজ্য তেলের (Edible oils) ক্রমবর্ধমান মূল্য নিয়ন্ত্রণের পথে হাঁটতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। পাম, সয়াবিন এবং সূর্যমুখী তেলের শুল্ক আরও কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। প্রত্যেকে ক্ষেত্রেই কমানো হল আমদানি শুল্ক। আর এর ফলে খুচরো বাজারে ভোজ্য তেলের দাম কমবে বলে আশাপ্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে, অপরিশোধিত পাম তেলের আমদানি শুল্ক কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হয়েছে। যা আগে ছিল ১০ শতাংশ। একইভাবে অপরিশোধিত সয়াবিন তেল এবং সাদা তেলের আমদানি শুল্ক ৭.৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২.৫ শতাংশ করা হয়েছে। অন্যদিকে, রিফাইনড পাম তেল, সয়াবিন এবং সাদা তেলের শুল্ক ৩২.৭৫ শতাংশ হবে। এই নয়া হার ইতিমধ্যেই কার্যকরও হয়েছে। আমদানি শুল্ক কমে যাওয়ার ফলে খুচরো বাজারে লিটারপিছু ভোজ্য তেলের দাম চার থেকে পাঁচ টাকা কমতে পারে। তবে এর প্রভাবে নাকি আনুমানিক ১১০০ কোটি টাকার রাজস্বও ক্ষতি হবে বলে জানান হয়েছে কেন্দ্রের তরফে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: বিজয় রূপানির বদলে গুজরাটের নতুন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল, চেনেন তাঁকে?]

ESEA-র এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর বি ভি মেহতা সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, কেন্দ্রের নয়া ঘোষণার ফলে কার্যক্ষেত্রে অপরিশোধিত পাম তেল, সয়া তেল এবং সাদা তেলের উপর শুল্কের পরিমাণ কমে হচ্ছে ২৪.৭৫ শতাংশ। মেহতার বক্তব্য, আমদানি শুল্কে কাটছাঁটের ফলে খুচরো বাজারে লিটারপিছু ভোজ্য তেলের দাম চার থেকে পাঁচ টাকা কমতে পারে। তবে অতীতে দেখা গিয়েছে যে ভারত আমদানি শুল্ক কমিয়ে দেওয়ার পর আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেড়ে যায়। তাই আদতে ক্রেতাদের লিটারপিছু ভোজ্য তেল কিনতে দুই থেকে তিন টাকা কম খরচ হবে। তবে বাজারের দর আরও কমানোর জন্য সরষের তেলের আমদানি শুল্ক কমানোর প্রয়োজন ছিল বলে জানিয়েছেন মেহতা।

Advertisement

প্রসঙ্গত, ভারত বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ভোজ্যতেলের আমদানিকারক দেশ। দেশের অভ্যন্তরীণ চাহিদা আমদানির মাধ্যমেই পূরণ করা হয় এবং সেই হার প্রায় ৬০%। এর অর্থ ভারতে দাম নির্ধারণে আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের মূল্য বৃদ্ধি একটি বড় ভূমিকা পালন করে। গত এক বছর ধরে ভারতে লাগাতার বেড়েছে ভোজ্য তেলের দাম। কেন্দ্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আগের বছরের তুলনায় ভোজ্য তেলের দাম বেড়েছে ৬০ শতাংশ। এক বছর আগে যেখানে এক লিটার সরষের তেল গড় দাম ছিল ১২০ টাকা। এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭০ টাকা। কোথাও কোথাও সরষের তেলও ডবল সেঞ্চুরি দোরগোড়ায় পৌঁছে গিয়েছে। এবার আমদানি শুল্ক কাটছাঁট হওয়ায় কিছুটা ভার লাঘব হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ৬ মাসে চার মুখ্যমন্ত্রী বদল! লোকসভা ভোটের আগে ‘কড়া শাসন’ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ