BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাড়ছে ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের প্রভাব, গাইডলাইন আনতে শীর্ষ আদালতে সওয়াল কেন্দ্রের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 17, 2020 12:39 pm|    Updated: September 17, 2020 1:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যম (Electronic Media) পরে। তার আগে ডিজিটাল সংবাদমাধ্যম (Digital Media) নিয়ে সতর্ক হতে হবে। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে এমনই বিবৃতি পেশ করল কেন্দ্রীয় সরকার। একটি মামলার শুনানির সময় বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমের মান নির্ধারণ প্রসঙ্গে বিবৃতিতে সরকার জানিয়েছে, আদালতের উচিত আগে ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের দিকে নজর দেওয়া। কারণ এর প্রভাব অনেক বেশি।

এদিন সরকারের তরফে দেওয়া ওই বিবৃতিতে শীর্ষ আদালতকে (Supreme Court) জানানো হয়েছে, ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের গতি অনেক দ্রুত। হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুকের মতো অ্যাপের মাধ্যমে এর ভাইরাল হয়ে পড়ার সুযোগ অনেক বেশি। যেহেতু ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের এমন গুরুতর প্রভাব রয়েছে, তাই আদালতকে প্রথমে ডিজিটাল সংবাদমাধ্যমের বিষয়ে সতর্ক হতে হবে।

[আরও পড়ুন: বেকারদের প্রতিবাদ! মোদির জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় পালিত হচ্ছে ‘জাতীয় বেরোজগার দিবস’]

সরকার আরও জানিয়েছে, সংবাদপত্র ও ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যমে যথেষ্ট বিচার ও প্রস্তুতির পরেই কোনও সংবাদ পরিবেশিত হয়। সেখানে বাকস্বাধীনতা ও দায়িত্বপূর্ণ সাংবাদিকতার মধ্যে সমতা রেখেই কাজ করা হয়। পাশাপাশি এও বলা হয়, ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যম আগের ঘটনা এবং নজিরের দিকে খেয়াল রেখে পরিচালিত হয়।

সুদর্শন টিভি নামের এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলের বিরুদ্ধে একটি মামলার শুনানি ছিল এদিন। সেখানে একটি শোয়ে বলা হয়েছিল, মুসলমানরা এদেশের সরকারি কর্মক্ষেত্রে অনুপ্রবেশ করছে। এর বিরুদ্ধেই চলছে মামলা। একটি পিটিশনের ভিত্তিতে শীর্ষ আদালত এই শো-টি বন্ধ রেখেছে মুসলমানদের অসম্মানের প্রয়াসের অভিযোগে। মঙ্গলবার শীর্ষ আদালত জানায়, ‘‘আপনারা কোনও সম্প্রদায়কে টার্গেট করে এমন আচরণ করতে পারেন না।’’ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ‘বিন্দাস বোল’ শোয়ের ‘ইউপিএসসি জিহাদ’ এপিসোডটির সম্প্রচার।

[আরও পড়ুন: ‘ক্রোনোলজিটা বুঝুন’, চিন ইস্যু নিয়ে ফের মোদি সরকারকে খোঁচা রাহুলের]

মঙ্গলবারের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট টিভিতে টিআরপির জন্য দৌড়ের বিরুদ্ধে সচেতন হওয়ার কথা বলে। পাশাপাশি ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যমের মান নির্ধারণের জন্য একটি প্যানেল গঠনের কথা বলা হয়। বিচারপতিরা জানান, সাংবাদিকতার স্বাধীনতা নিরঙ্কুশ নয়। পাঁচজন বিশিষ্ট নাগরিককে নিয়ে একটি প্যানেল গঠন করে ইলেকট্রনিক সংবাদমাধ্যমের মান নির্ধারণ করা হবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement