BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যোগাসন, প্রাণায়াম, চবনপ্রাশ! সুস্থ থাকতে করোনাজয়ীদের জন্য নয়া নির্দেশিকা কেন্দ্রের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 13, 2020 11:43 am|    Updated: September 13, 2020 1:36 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশে দিন দিন করোনা আক্রান্তের সংখ্যাটা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে করোনাজয়ীর সংখ্যাও। রবিবারই স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, সেপ্টেম্বর মাস পড়ার পর থেকেই দৈনিক ৭০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হচ্ছেন। কিন্তু সমস্যাটা হল সুস্থ হওয়ার পরও করোনা রোগীদের মধ্যে পোস্ট কোভিড কিছু উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। শ্বাসকষ্ট, ক্লান্তি, পেশিতে যন্ত্রণা ইত্যাদি নানা ধরনের সমস্যা দেখা যাচ্ছে। খোদ দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) এই সমস্যায় ভুগছেন। তাই কেন্দ্র মনে করছে, করোনাজয়ীদেরও এবার নির্দিষ্ট কিছু প্রোটোকল মেনে চলা উচিত। এবং সেজন্য নির্দিষ্ট কিছু গাইডলাইনও বেঁধে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare, Government of India) এই গাইডলাইনে মূলত দেশি এবং আয়ুর্বেদিক টোটকার উপর জোর দেওয়া হয়েছে। করোনাজয়ীদের নিয়মিত ব্যায়াম, যোগাসন, প্রাণায়ামের পরামর্শ দিচ্ছে কেন্দ্র। টুকটাক কাজকর্ম করে দেহের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ গুলি সচল রাখারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে। সেই সঙ্গে বেঁধে দেওয়া হয়েছে খাদ্যাভ্যাসও। কেন্দ্রের গাইডলাইন দু’ভাগে বিভক্ত। ব্যক্তিগত স্তরে এবং সামগ্রিকভাবে কী কী পালন করতে হবে তা আলাদা ভাবে বর্ণনা করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দেশে একদিনে করোনার কবলে প্রায় ৯৪ হাজার, সুস্থতার হার আশাব্যঞ্জক, দাবি কেন্দ্রের]

গাইডলাইনে বলা হয়েছে,

  • সুস্থ হওয়ার পরও করোনা বিধি মানতে হবে (মাস্ক, স্যানিটাইজার ব্যবহার)
    যথেষ্ট পরিমাণ গরম জল পান করতে হবে।
  • আয়ুশ মন্ত্রকের পরামর্শ মতো রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বর্ধক ওষুধ খেতে হবে।
  • সম্ভব হলে বাড়ির কাজ করতে হবে, ধীরে ধীরে কর্মক্ষেত্রেও যাওয়া শুরু করতে হবে।
  • হালকা ব্যায়ামের অভ্যাস করুন। রোজ প্রাণায়াম, যোগ, ধ্যান করুন। নিশ্বাস-প্রশ্বাস সংক্রান্ত মুদ্রা নিয়মিত অনুশীলন করতে হবে। রোজ সকালে বা সন্ধেয় নিয়ম করে হাঁটা বাঞ্ছনীয়।
  • হালকা, সহজপাচ্য এবং টাটকা খাবার খান। নিয়মিত বিশ্রাম এবং ঘুম হওয়া জরুরি। ধুমপান এবং মদ্যপান এড়িয়ে চলুন। নিয়মিত শরীরের তাপমাত্রা, ব্লাড প্রেসার, ব্লাড শুগার পরীক্ষা করুন।
  • ছাড়াও আয়ুশ মন্ত্রকের প্রস্তাবিত চবনপ্রাশ, হলুদ গুড়োর সঙ্গে দুধ বেশ উপকারী। আদা, গরম দুধ, অশ্বগন্ধা, আয়ুশ কাথ নিয়মিত খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও সার্বিকভাবে করোনা রুখতে অন্যান্যদের রোগীদের মনোবল বাড়ানো, নিজেদের অভিজ্ঞতার বর্ণনা করা, সামাজিক কাজে যুক্ত হওয়ার মতো পদক্ষেপ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement