BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৬ মে ২০২০ 

Advertisement

রোগ মোকাবিলায় বড় সিদ্ধান্ত এইমসের! ট্রমা সেন্টার পরিণত হচ্ছে করোনা হাসপাতালে

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 30, 2020 1:20 pm|    Updated: March 30, 2020 5:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা দমনে নয়া ঘোষণা দিল্লির এইমস হাসপাতালের। নিজেদের ট্রমা কেয়ার সেন্টারটিকে সম্পূর্ণভাবে করোনা আক্রান্তদের হাসপাতালে পরিবর্তন করা হচ্ছে। করোনা আক্রান্তদের থেকে যাতে সংক্রমণ না ছড়ায় তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বলে জানা যায়।

ডাক্তার ডিকে শর্মা ও এইমসের সুপারিনটেন্ডেন্ট জানিয়েছেন,”এইমসের তরফ থেকে এই ট্রমা সেন্টারটি বানানো হয়েছিল প্রধানত দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য। তবে দিনে দিনে সচেতনতার প্রচার বৃদ্ধি পাওয়ায় ট্রমা সেন্টারটি বিশেষে ব্যবহার হচ্ছে না। তাই দেশে করোনার প্রভাব বেড়ে যাওয়ায় আক্রান্তের স্বার্থে ট্রমা সেন্টারটিকে পুরোপুরি করোনা হাসপাতালে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। হাসপাতালে বেডের সংখ্যা বাড়িয়ে ২০০ করা হবে। তবে ভবিষ্যতে প্রয়োজন অনুযায়ী বেডের সংখ্যা বাড়িয়ে দেওয়া হবে।” ডাঃ শর্মা আরও জানান,”এইমসের এই হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগকে আরও শক্তিশালী করে তুলতে হাসপাতালে থাকা ২০টি আইসিইউর বেড রয়েইছে। বার্নিও ওয়ার্ড থেকে ৩০টি বেড সহ আরও অনেকগুলি বেডের আয়োজন করা হয়েছে হাসপাতালে। ৭০টি ভেন্টিলেটর মজুত রাখা হয়েছে। ” তবে ট্রমা কেয়ার সেন্টারটিকে সম্পূর্ণভাবে তুলে না দিয়ে এইমসের জরুরি বিভাগের মধ্যেই ট্রমা সেন্টারটিকে নিয়ে আসা হয়েছে। গত সপ্তাহেই দেশে করোনা সংক্রমণের প্রভাব বাড়তে থাকায় এই সিদ্ধান্ত নেবেন বলে স্থির করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

[আরও পড়ুন :গুজরাটে ফের করোনোর বলি ৪৫ বছরের মহিলা, রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ছয়]

দেশে করোনার প্রভাব বাড়তে থাকায় বহির্বিভাগটিকে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নতুন করে হাসপাতালে কোনও রোগীকে ভরতি নেওয়া হচ্ছে না। শুধুমাত্র জরুরি ভিত্তিতে পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে হাসপাতালগুলিতে। তাদের নির্ধারিত অস্ত্রোপচারগুলিকেও তারা পিছিয়ে দিয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে বলা হয়েছে শুধুমাত্ত প্রাণ বাঁচানোর মত জরুরি বিষয় ছাড়া অস্ত্রোপচার করা হবে না। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একটি টাস্ক ফোর্স গঠন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে।

[আরও পড়ুন :‘লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর কোনও পরিকল্পনা নেই’, ঘোষণা কেন্দ্রের শীর্ষ আমলার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement