BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Flood Situation: ‘জলাধার থেকে জল ছাড়তেই বন্যা’, Mamata’র অভিযোগ মানল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 4, 2021 2:08 pm|    Updated: August 4, 2021 4:18 pm

Discharge from dams caused flash flood in West Bengal district, says PMO | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলার বন্যা (Bengal Flood Situation) পরিস্থিতির খোঁজ নিয়ে ফোন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথাও হয় তাঁর। রাজ্যের এই পরিস্থিতির জন্য ফোনালাপে ডিভিসিকে দায়ী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। একে ‘ম্যান মেড’ বন্যা বলেও নালিশ করেছেন তিনি। মমতার সেই অভিযোগকেই কার্যত মান্যতা দিলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের (PMO) তরফে করা টুইট অন্তত তেমনটাই বলছে।

পিএমও-র তরফে করা টুইটে বলা হয়েছে,”জলাধার থেকে জল ছাড়ার দরুন বাংলার কিছু জায়গায় হওয়া বন্যা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রের তরফে রাজ্যকে সমস্তরকম সাহায্য করা হবে। বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের জন্য প্রার্থনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।” ওয়াকিবহাল মহল বলছে, এই টুইট থেকে স্পষ্ট যে প্রধানমন্ত্রী রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Bengal CM Mamata Banerjee) অভিযোগ মেনে নিয়েছেন। ঠিক কী অভিযোগ করেছিলেন মমতা?

[আরও পড়ুন: লোকসভায় Insurance Amendment Bill পাশ হওয়া নিয়ে বিতর্ক, দেশজুড়ে ধর্মঘট বিমাকর্মীদের]

ফোনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সরাসরি অভিযোগ জানান মুখ্যমন্ত্রী। একে ‘ম্যান মেড’ বন্যা বলে দাবি করেন। বলেন, “DVC জলাধারেরর পলি পরিষ্কার করা হয় না।” পরিষ্কার থাকলে অতিরিক্ত জল ধরে রাখা সম্ভব হত বলে মোদির কাছে সরাসরি অভিযোগ জানান মমতা। তিনি আরও বলেন, ৫০ হাজার কিউসেক জল ছাড়বে বলে ২ লক্ষ কিউসেক জল ছাড়া হয়েছে। সেই কারণেই প্লাবিত বহু এলাকা। তাঁর সেই অভিযোগে প্রধানমন্ত্রী কার্যত সিলমোহর দিলেন বলেই মনে করা হচ্ছে।

 

দীর্ঘদিন ধরে একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্র-রাজ্যের সংঘাত চলছিল। অধিকাংশ সময়ই দেখা গিয়েছে, রাজ্যের অভিযোগ মানেনি কেন্দ্র। কিংবা কেন্দ্রের দাবিকে খারিজ করেছে রাজ্য। এবার একেবারে উলটোচিত্র। কেন্দ্রের নেতৃত্বাধীন ডিভিসির বিরুদ্ধে ওঠা অতিরিক্ত জলছাড়ার অভিযোগ মেনে নিয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। যা দেখে মনে করা হচ্ছে, এবার হয়তো বাংলার সঙ্গে কেন্দ্রের সংঘাতে ইতি পড়ল। কেন্দ্র ও রাজ্য সম্মিলিতভাবে বাংলার বন্যা দুর্গত মানুষের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হবে, আপাতত এই আশাতেই বুক বাঁধছে রাজ্যের মানুষ।

[আরও পড়ুন: নাটকীয়ভাবে প্রিজন ভ্যানের জানলা গলে চম্পট দুই দুষ্কৃতীর, প্রশ্নের মুখে তমলুক পুলিশের ভূমিকা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×