BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

একেই বলে প্রভুভক্তি, মালকিনের মৃতদেহ দেখেই ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী পোষ্য

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 4, 2020 5:30 pm|    Updated: July 4, 2020 6:12 pm

Dog jumps from high rise after seeing mistress's deadbody in Uttarpradesh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মরতে বসা ছোট শরীরে প্রাণ দিয়েছিলেন তিনি। ১২ বছর বুকে ধরে আগলে রেখেছিলেন। তাই তাঁর চলে যাওয়া মেনে নিতে পারল না ছোট জীবটি। মালকিনের মৃতদেহ বাড়িতে আসতেই ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হল তাঁর পোষ্য কুকুরটিও (Dog)। মালকিন পোষ্যের এমন ভালবাসার সাক্ষী রইল উত্তরপ্রদেশের কানপুরের (Kanpur) বাররা ২ অঞ্চলের বাসিন্দারা। মালকিনের দেহের পাশেই শেষকৃত্য হল তারও। 

উরসুলা হরসম্যানের কাছে একটি হাসপাতালের পাশে কুকুরটিকে (Dog) ফেলে রেখে পালিয়ে গিয়েছিল মা কুকুর। খাবার না পেয়ে এবং শরীরে ঘা হয়ে একেবারে মরতে বসেছিল কুকুরটি। ভাগ্যক্রমে  ওই রাস্তা দিয়েই সেদিন গাড়িতে যাচ্ছিলেন অনিতা রাজ সিং। তিনি কুকুরটিকে দেখে গাড়ি থামিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসেন। এসব তাও প্রায় বারো বছর আগের কথা। দত্তক নিয়ে তার নাম দেন ‘জয়া’। অনিতা ছিলেন স্বাস্থ্য দপ্তরের জয়েন্ট ডিরেক্টর। আর তার নিত্যসঙ্গী ছিল এই জয়া। 

dog

[আরও পড়ুন : বয়স্ক মহিলাকে গাড়ির তলায় পিষে দিল মদ্যপ পুলিশকর্মী, ভাইরাল ভিডিও]

অনিতার ছেলে তেজসের কথায়, “জয়া খুব রোগা ও দুর্বল ছিল। মা ওকে খুব যত্ন করত। ও আমাদের বাড়িরই একজন সদস্য হয়ে গিয়েছিল। কয়েক মাস ধরেই মা খুব ভুগছিলেন। কিডনির সমস্যায় নিয়ে শহরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল মায়ের। গত বুধবার সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছে মা।” তেজস আরও জানান, অনিতার দেহ হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। তখন থেকেই জয়া অসম্ভব চিৎকার করছিল। আচমকাই ও চারতলায় উঠে যায় এবং সেখান থেকে নিচে ঝাঁপ দেয়। মেরুদণ্ড ভেঙে যাওয়ায় ওকে সঙ্গে সঙ্গে পশু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওর সেখানেই মৃত্যু হয়।

[আরও পড়ুন : লাগাতার অভিযানে কাশ্মীরে বানচাল নাশকতার ছক, খতম এক জেহাদি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে