২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দিল্লির নির্বাচনকে ভারত-পাক যুদ্ধ বলার জের, বিপাকে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 24, 2020 11:54 am|    Updated: January 24, 2020 11:54 am

EC notice to Kapil Mishra on provocative India vs Pak on Feb 8 remark

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লির মধ্যে পাকিস্তান তৈরি হচ্ছে। আগামী আটই ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে ভারত ও পাকিস্তান ম্যাচ হবে। বিধানসভা নির্বাচনের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে এই ধরনের টুইট করে উত্তেজনা তৈরির চেষ্টা করেছিলেন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র। বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছিল দেশজুড়ে। এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাতে তাঁকে শোকজ নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রের বিতর্কিত টুইট সম্পর্কে দিল্লির মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের থেকে একটি রিপোর্ট চেয়ে পাঠানো হয়েছে। ওই রিপোর্টে জানতে চাওয়া হয়েছে, কেন ওই বিজেপি নেতা দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনকে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে ম্যাচ বলে উল্লেখ করেছেন। আদর্শ আচরণবিধি (Model Code of Conduct) অনুযায়ী, কোনও রাজনৈতিক দল বা তাদের প্রার্থীরা ধর্ম ও সম্প্রদায় নিয়ে এমন কোনও মন্তব্য করতে পারেন না যাতে উত্তেজনা বা অশান্তি সৃষ্টি হয়। প্রাথমিকভাবে কপিল মিশ্র সেই কাজ করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তাই এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বাংলার মন জয়ের চেষ্টা! সাধারণতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে শ্যামাপ্রসাদের নামাঙ্কিত ট্যাবলো ]

 

এরপরই গ দিল্লির মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের তরফে কপিল মিশ্রের কাছে একটি নোটিস পাঠানো হয়। তাতে জানতে চাওয়া হয়েছে, আদর্শ আচরণবিধি ভাঙার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। এপ্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে কপিল মিশ্র বলেন, ‘গতকাল রাতে নির্বাচন কমিশনের একটা নোটিস পেয়েছি। আজ এই বিষয়ে আমার উত্তর দেব। আমি মনে করি না যে কোনও ভুল মন্তব্য আমি করেছি। সত্যি কথা বলা এদেশে কোনও অপরাধ নয়। যেহুতু আমি সত্যি কথা বলেছি তাই নিজের বক্তব্যেই অনড় থাকব।’

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে তৃতীয় পক্ষ নয়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে কড়া বার্তা নয়াদিল্লির ]

 

বিষয়টির সূত্রপাত হয় বৃহস্পতিবার। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিনের সকালে আচমকা বেশ কয়েকটি টুইট করেন AAP থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া কপিল মিশ্র। প্রথম টুইটে উল্লেখ করেছিলেন, ‘আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর রাজপথে যুদ্ধ হতে চলেছে ভারত ও পাকিস্তানের।’ পরের টুইটে কটাক্ষ করেন, ‘দিল্লির শাহিনবাগের মধ্যে ইতিমধ্যেই ঢুকে পড়েছে পাকিস্তান। এখানে ছোট ছোট পাকিস্তান তৈরি করা হচ্ছে। পাকিস্তানি জঙ্গিরা চাঁদবাগ, ইন্দ্রলোক ও শাহিনবাগে ঢুকে পড়েছে। তাই দেশের আইন আর ওখানে মানা হয় না।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে