BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মুখ ফিরিয়েছে সন্তানরা, একবছর ধরে শৌচালয়ই আশ্রয় সত্তরোর্ধ্ব মহিলার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 25, 2019 3:39 pm|    Updated: March 25, 2019 3:52 pm

Elderly woman forced to live in toilet in Madhya Pradesh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরিবারের বয়স্কদের সঙ্গে এমন অনেক ঘটনা প্রকাশ্যে আসে, যা অনেকসময় গায়ে কাঁটা দেয়। অনেকসময়ই প্রকাশ্যে এসে পড়ে পরিবারে বয়স্কদের ব্রাত্য থাকার ঘটনা। কিন্তু এবার এমন একটি ঘটনা প্রকাশ্যে এল যা শুনলে শিউরে উঠতে হয়। এক সত্তরোর্ধ্ব মহিলাকে বাধ্য করা হল শৌচালয়ে থাকতে।

ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশে। পরিবারের সঙ্গে তাঁর ঝামেলা। ব্যক্তিগত কারণেই এই বৃদ্ধার সঙ্গে মনমালিন্য তাঁর ছেলে-বউমার। তিন ছেলে তাঁর। অথচ একজনেরও মায়ের দিকে খেয়াল নেই। যে যার নিজের জীবন নিয়ে ব্যস্ত। উলটে মায়ের যাতে অসুবিধা হয়, তার জন্য কোনও কসুর করেননি তাঁরা। অভিযোগ এমনই। এমনও জানা গিয়েছে, নিত্য নাকি ওই বৃদ্ধার সঙ্গে ছেলেদের ও বউমার অশান্তি লেগে থাকত। খবর, সেই কারণেই নাকি মাকে বাড়ির বাইরে বের করে দিয়েছিলেন তাঁরা। তাও একবছর আগে। সেই থেকে বাড়ির বাইরেই রয়েছেন বৃদ্ধা। আশ্রয় বলতে শৌচালয়। ওখানেই সংসার পেতেছেন তিনি। ওখানেই থাকেন, খাওয়া-দাওয়া করেন, ঘুমান। একবছর ধরে এটাই তাঁর আশ্রয়স্থল।

[ আরও পড়ুন: ক্ষমতায় এলে গরিবদের বছরে ৭২ হাজার টাকা করে সাহায্য, বড় ঘোষণা রাহুলের ]

ওই বৃদ্ধা বলছেন, “আমি তিন ছেলের মা। আমার সঙ্গে আমার বউমার নিত্য অশান্তি লেগে থাকত। অনেক বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে ঝগড়া হত। সেই জন্যই আমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। একবছর হয়ে গেল আমাকে বাড়ির বাইরে শৌচালয়ে থাকতে হয়। নিজেই রান্না করি। এই শৌচালয়ের মধ্যেই ঘুমাই।”

ঘটনাটি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে। আর তারপরই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাটি মহকুমা শাসককে জানানো হয়েছে। শোনা গিয়েছে, সরকারের তরফে ওই বৃদ্ধাকে একটি বাড়ি দেওয়ার পরিকল্পনা চলছে। কিন্তু তাঁকে কবে বাড়ি দেওয়া যাবে, আদৌ দেওয়া যাবে কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই গিয়েছে। ওই মহিলাদের বউমা ও ছেলেদের শাস্তি হবে কিনা, ধোঁয়াশা রয়েছে তা নিয়েও।

আরও পড়ুন: টাকা নেই, জার্সি বেচে নির্বাচনী লড়াইয়ে ‘পাহাড়ি বিছে’ বাইচুং ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে