BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বেঙ্গালুরুতে মৃত প্রতারণায় অভিযুক্ত ব্যাংকের প্রাক্তন শীর্ষকর্তা, কারণ নিয়ে ধন্দে পুলিশ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 7, 2020 6:01 pm|    Updated: July 7, 2020 6:03 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জানুয়ারিতে ১৪০০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগে বেঙ্গালুরুর গুরু রাঘবেন্দ্র ব্যাংক (Guru Raghavendra Bank) -এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে আরবিআই (RBI)। প্রতারণা ও ভুয়ো কাগজপত্র জমা দেওয়ার অভিযোগে ওই ব্যাংকের চিফ এগজিকিউটিভ অফিসার এম বাসুদেব মাইয়ার বিরুদ্ধে একটি মামলাও দায়ের হয়। এরপরই তাঁকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। সোমবার সন্ধ্য়ায় রহস্যজনকভাবে প্রাক্তন সেই ব্যাংক কর্তার মৃতদেহ উদ্ধার হল তাঁর বাড়ির সামনে থেকে। পুলিশ তদন্ত শুরু করলেও এখনও পর্যন্ত তাঁর মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, জানুয়ারিতে রিজার্ভ ব্যাংক গুরু রাঘবেন্দ্র ব্যাংকের উপর নিষেধাজ্ঞার জারির পরেই গ্রাহকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন তৎকালীন সিইও (CEO) বাসুদেব মাইয়া। গ্রাহকদের কোনও টাকা মার যাবে না বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। পরে তাঁর নামে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা দায়ের হওয়ার পর ব্যাংকের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। বসানো হয় একজন প্রশাসককে। পরে জুন মাসে তদন্তের স্বার্থে বাসুদেবের বাড়িতে রেডও করা হয়। এরপর আচমকা সোমবার নিজের বাড়ির সামনে থেকে উদ্ধার হল ওই ব্যাংক কর্তার মৃতদেহ। বিষয়টি খুবই সন্দেহজনক বলে মনে করছেন তাঁর প্রতিবেশীরা।

[আরও পড়ুন: ‘মহাভারতের থেকেও কঠিন করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ’, মোদিকে কটাক্ষ শিব সেনার]

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৯ সালের শেষের দিকে মহারাষ্ট্রের পিএমসি (PMC) ব্যাংকের লেনদেনের উপর নিষেধাজ্ঞা করে রিজার্ভ ব্যাংক। আর তার কয়েক মাসের মধ্যে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে একই অভিযোগে নিষেধাজ্ঞা জারি হয় গুরু রাঘবেন্দ্র ব্যাংকে। আরবিআইয়ের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, আগামী ৬ মাস সেভিংস ও কারেন্ট অ্যাকাউন্ট থেকে ৩৫ হাজার পর্যন্ত টাকা তুলতে পারবেন আমানতকারীরা।

[আরও পড়ুন: ‘ভূতুড়ে উড়ানে’র টিকিট বিক্রি করছে বিমানসংস্থাগুলি! বিপাকে যাত্রীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement