২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বা এয়ার স্ট্রাইকের ধাঁচে পাকিস্তানের উপর হামলার ছক কষেছিলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিংও। সম্প্রতি এই তথ্য ফাঁস করেছেন প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। সম্প্রতি তাঁর আত্মজীবনী প্রকাশ পেয়েছে। তাতেই প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলছেন, মনমোহন সিং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেনা অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। মুম্বই হামলার মতো আর কোনও বড় সন্ত্রাসবাদী হামলা হলেই পাকিস্তানের উপর সেনা অভিযান করতেন তিনি। 

[আরও পড়ুন: ‘নরক’ হয়ে উঠেছে শ্রীনগর, পুলিশের বেধড়ক মারে শয্যাশায়ী সাংবাদিক]

ক্যামেরন ২০১০ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন বার তিনেক ভারত সফরে আসেন। মনমোহন সিং প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন তাঁর সঙ্গে ভাল সম্পর্ক তৈরি হয় ক্যামেরনের। সেসময় ভারত-ব্রিটেন সম্পর্কও নতুন রূপ নেয়। নিজের স্মৃতিকথায় ক্যামেরন লিখছেন,”প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের সঙ্গে আমার সম্পর্ক বেশ ভাল। উনি খুব সাধু ব্যক্তি। যদিও, ভারতের উপর কোনও বিপদ এলে উনি কঠোর হাতে তা দমন করতেন। একবার উনি আমাকে বলেন, যদি মু্ম্বই হামলার মতো আর কোনও বড় হামলা ভারতের উপর হয় তাহলে উনি পাকিস্তানে সেনা অভিযান করবেন।” উল্লেখ্য, ২৬/১১ মুম্বই হামলার পর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বেশ কিছু কূটনৈতিক পদক্ষেপ করলেও তৎকালীন ইউপিএ সরকার সরাসরি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সেনা অভিযান করেনি। যে কারণে, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে বিরোধীদের কাছে কটাক্ষও শুনতে হয়েছিল।  

[আরও পড়ুন: দেশীয় যুদ্ধবিমান তেজসে সওয়ার রাজনাথ, গড়লেন নয়া নজির]

সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এবং বালাকোট এয়ারস্ট্রাইক। মোদি সরকারের আমলে ভারতীয় সেনার এই দুই পদক্ষেপ গোটা দেশে প্রশংসিত। এই দুই সেনা অভিযানের জন্য মোদি সরকার যে শুধু প্রশংসা পেয়েছে তাই নয়, ভোটবাক্সেও ব্যাপক ফায়দা পেয়েছে বিজেপি। সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে কোনওরকম আপস নয়, মোদি সরকারের এই বার্তা মানুষের গ্রহণযোগ্য বলে মনে হয়েছে। এ প্রসঙ্গে পূর্ববর্তী কংগ্রেস সরকারের সহনশীল মানসিকতাকেও বারবার কাঠগড়ায় তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তবে, মনমোহনের এই পরিকল্পনা যদি বাস্তবায়িত হত, তাহলে হয়তো বিরোধীদের আর প্রশ্ন তোলার অবকাশ থাকত না। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং