BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘অন্ধকূপের থেকেও খারাপ’, হাসপাতালের দুর্দশা দেখে গুজরাট সরকারকে তোপ হাই কোর্টের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 24, 2020 5:24 pm|    Updated: May 24, 2020 5:24 pm

Gujarat Court On blames hospital after COVID-19 deaths

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হাসপাতাল না অন্ধকূপ! গুজরাটের সবচেয়ে বড় এবং আধুনিক হাসপাতালগুলির মধ্যে অন্যতম আহমেদাবাদ সিভিল হাসপাতালের (Ahmedabad Civil Hospital) পরিস্থিতি দেখে এভাবেই উদ্বেগ প্রকাশ করল গুজরাট হাই কোর্ট (Gujarat High Court)। দেশের অন্যতম বড় হাসপাতালেও উপযুক্ত চিকিৎসা পাচ্ছে না সাধারণ মানুষ। যা নিয়ে গুজরাট সরকারকে রীতিমতো কাঠগড়ায় তুলল উচ্চ আদালত।

করোনা ভাইরাসের প্রকোপে গুজরাটের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ফুটিফাটা চেহারাটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে। আয়তনে অনেক ছোট হওয়া সত্বেও করোনা সংক্রমণের নিরিখে গুজরাট এখন দেশে তৃতীয়। রাজ্যে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা প্রায় ১৩ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ৮২৯ জনের। স্রেফ আহমেদাবাদ শহরে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজারের বেশি। আহমেদাবাদে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৬৬৯ জনের। এর মধ্যে ৩৭৭ জন চিকিৎসাধীন ছিল গুজরাট সিভিল হাসপাতালে। গত ৮ সপ্তাহ ধরে রাজ্যের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রোগী মারা যাচ্ছে এই হাসপাতালেই। যা দেখে রীতিমতো উদ্বিগ্ন হাই কোর্ট। শনিবার এই সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানিতে বিচারপতি মন্তব্য করেন, “আমরা খুব দুঃখের সঙ্গে বলতে বাধ্য হচ্ছি, আজকের দিনে দাঁড়িয়েও আহমেদাবাদের সিভিল হাসপাতালের পরিস্থিতি খুব খারাপ। ওখানে সাধারণত গরিব মানুষ চিকিৎসা করান। তার মানে এটা নয় যে, মানুষের জীবনের মূল্য নেই। মানুষের জীবন অত্যন্ত মূল্যবান। আর আহমেদাবাদ সিভিল হাসপাতালের মতো জায়গায় এভাবে মানুষকে মরতে দেওয়া যায় না।”

[আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার জন্য দোষারোপ, যোগীকে হিটলার বলে কটাক্ষ শিব সেনার]

রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে তোপ দেগে আদালতের মন্তব্য,”আমরা জানি না কতবার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী ওই হাসপাতালে গিয়েছেন। ওখানে এখন চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী এবং রোগীরা যে চরম অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন, সে সম্পর্কে আদৌ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কোনও ধারণা আছে কি? আমরা আগেই বলেছি, সিভিল হাসপাতাল সাধারণ রোগীদের চিকিৎসার জায়গা। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে, ওটা একটা অন্ধকূপ। কিংবা তার থেকেও খারাপ। দুঃখের বিষয় অসহায়, গরীব মানুষগুলোর কাছে আর কোনও বিকল্প নেই।”

[আরও পড়ুন: মধ্যপ্রদেশে ক্ষমতায় ফিরতে মরিয়া কংগ্রেস! উপনির্বাচনেও প্রচারের দায়িত্বে প্রশান্ত কিশোর]

আদালতের এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপির বিরুদ্ধে আসরে নেমেছে কংগ্রেসও। কংগ্রেসের প্রধান মুখপাত্র রনদীপ সিং সুরজেওয়ালা বলছেন, “প্রধানমন্ত্রীর রাজ্য এবং অমিত শাহ’র লোকসভা কেন্দ্র গান্ধীনগর-আহমেদাবাদের অবস্থা দেখুন। রাজ্যের ৪৫ শতাংশ করোনা মৃত্যু হয়েছে আহমেদাবাদ সিভিল হাসপাতালে। হাই কোর্ট এই হাসপাতালকে অন্ধকূপের থেকেও খারাপ বলেছে। একটা হাসপাতাল চালাতে পারে না, এঁরা দেশ কি চালাবে!”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে