২৮ আশ্বিন  ১৪২৬  বুধবার ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  প্রকাশ্যে গুলি চালিয়ে খুন করা হল হরিয়ানা কংগ্রেসের মুখপাত্রকে। মৃতের নাম বিকাশ চৌধুরি। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটে হরিয়ানার ফরিদাবাদে, সেক্টর নাইন এলাকায়। ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে খুনে জড়িত দুই ব্যক্তির খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন- স্বাস্থ্য ব্যবস্থার নিরিখে দেশের সেরা কেরল, তালিকায় সবার নিচে যোগীর উত্তরপ্রদেশ]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অন্যদিনের মতো বৃহস্পতিবার সকালেও সেক্টর নাইন এলাকার একটি জিমে গিয়েছিলেন বিকাশ। সেখানের গাড়ি পার্কিং করার সময় তাঁর উপর হামলা করে দুই দুষ্কৃতী। ঘটনাস্থলে থাকা সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে, ওই কংগ্রেস নেতা গাড়ি পার্কিং করছিলেন। আচমকা একটি গাড়ি সামনে এসে দাঁড়ায়। তারপর মুখোশধারী দুই দুষ্কৃতী গাড়ি থেকে নেমে এসে দুদিক থেকে গুলি চালাতে থাকে। পরে সেই আওয়াজ পেয়ে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুটে এলে পালিয়ে যায় তারা। পরিস্থিতি দেখে বিকাশকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, সেখানকার ডাক্তাররা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এপ্রসঙ্গে ওই হাসপাতালের ডাক্তার সৌরভ বলেন, “ডাক্তাররা তাঁকে বাঁচানোর সমস্ত রকম চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু, তাঁর শরীরে ১০টির বেশি গুলি করা হয়েছিল। ফলে আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করলেও তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।”

[আরও পড়ুন- ইন্দো-মার্কিন সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে মোদির সঙ্গে বৈঠক ট্রাম্পের বিদেশ সচিবের]

পুলিশ সূত্রে খবর, সিসিটিভি ফুটেজে ওই কংগ্রেস নেতাকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু, এটা পরিষ্কার হয়নি যে দুষ্কৃতীরা তাঁকে অনুসরণ করে এসেছিল না আগে থেকেই ঘটনাস্থলে অপেক্ষা করছিল।

ভারতীয় জাতীয় লোক দল থেকে রাজনীতিতে হাতেখড়ি। তারপর ২০১৫ সালে কংগ্রেসে যোগ দেন ৩৮ বছরের বিকাশ। বিধানসভা নির্বাচনের সময় দল টিকিট না দেওয়ার জেরেই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন জানা গিয়েছে। তবে কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার পর সংগঠনের কাজেই তাঁকে বেশি দেখা গিয়েছিল। দলে রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি অশোক তানোয়ারের ঘনিষ্ঠ বলেও পরিচিত ছিলেন।

এই ঘটনার খবর পাওয়ার পরেই রাজ্যের বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন অশোক তানোয়ার। অপরাধীদের দ্রুত গ্রেপ্তারেরও দাবি তোলেন। বলেন, “রাজ্যে আইনের কোনও শাসন নেই। তাই প্রায়ই এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। বুধবারও এক মহিলাকে হেনস্তা করা হচ্ছিল। প্রতিবাদ করলে তাঁকে ছুরিও মারে দুষ্কৃতীরা।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং