BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ হল শিব সেনাও

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 28, 2019 6:22 pm|    Updated: November 28, 2019 6:23 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কংগ্রেস ও এনসিপির সঙ্গে জোট বাঁধার পরেই কট্টর হিন্দুত্ববাদের রাস্তা থেকে সরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছিল। এবার মহারাষ্ট্র ডেভেলপমেন্ট ফ্রন্টের অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচি থেকে হিন্দুত্ববাদের ইস্যুকে সরিয়ে রাখল শিব সেনা। তার বদলে ভারতের সর্বধর্মের আদর্শকে রক্ষা করার শপথ নিল তারা। বৈচিত্র্যের মধ্যে ঐক্যের পক্ষে সওয়াল করল। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় শিবাজি পার্কে শপথগ্রহণের আগে জানিয়ে দিল সবার উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করবে তারা।

[আরও পড়ুন: রিহ্যাব থেকে মুক্তির আশা, সঙ্গিনীকে গলা টিপে খুন দুই মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতীর]

বৃহস্পতিবার সকাল মু্ম্বইয়ের ওয়াই বি চহ্বাণ সেন্টারে বৈঠকে বসেন উদ্ধব, এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ার ও কংগ্রেসের আহমেদ পটেল এবং কে সি বেণুগোপাল। এর আগে তিন দলের সম্মতিতে তৈরি হয়েছে অভিন্ন ন্যূনতম কর্মসূচি। যেখানে কৃষকদের ঋণ মাফ ও ভূমিপুত্রদের চাকরিতে সংরক্ষণের বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শিবসেনা ১৫টি ও বাকি দু’দল ১৩টি করে দপ্তর নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিয়েছে বলে খবর। যদিও অন্য একটি সূত্রের মতে, যেহেতু শিবসেনা ও এনসিপি প্রায় সমসংখ্যক আসন পেয়েছে। তাই দু’দলকে ১৫টি করে দপ্তর দেওয়া হবে। আর কংগ্রেস পাবে ১৩টি দপ্তর। আর উদ্ধবপুত্র আদিত্যকে এখনই সরকারের কোনও মন্ত্রী পদে বসানো হচ্ছে না। তবে দলে আগের থেকেও আরও গুরুত্ব বাড়ানো হচ্ছে তাঁর।

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রের পর ঝাড়খণ্ডেও ধাক্কা! বুথফেরত সমীক্ষা চিন্তা বাড়াচ্ছে বিজেপির]

বিদ্রোহ করে যিনি তিন দলের জোট সরকার গড়ার সম্ভাবনা প্রায় শেষ করে দিয়েছিলেন। সেই অজিত পওয়ার ফের উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন বলে জানা গিয়েছে। তবে আজ তাঁর শপথ নেওয়া সম্ভাবনা নেই বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর, বিজেপির সঙ্গে হাত মেলানোর জন্য ভাইপো অজিতের উপর রেগে গিয়েছিলেন শরদ পওয়ার। তবে ফের ঘরে ফেরত আসায় অজিতকে ক্ষমা করে দিয়েছেন তিনি। আর তারই পুরস্কার হিসেবে অজিত ফের উপমুখ্যমন্ত্রী পদে বসতে চলেছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement