BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দেশে পর্যাপ্ত ওষুধ ও খাবার রয়েছে’, বর্ধিত লকডাউনে দেশবাসীকে আশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 14, 2020 2:47 pm|    Updated: April 14, 2020 2:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “লকডাউন বর্ধিত হলেও চিন্তার কিছু নেই”, জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আজ প্রধানমন্ত্রী লকডাউনের সময়সীমা বৃদ্ধি ঘোষণার পরই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টুইট করে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করেন, “দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবার ও ওষুধ মজুত রয়েছে। তাই সেই বিষয়ে দেশের মানুষের চিন্তার কোনও কারণ নেই।”

দেশে যে লকডাউনের আয়ুকাল বর্ধিত করা হবে তা আগেই আন্দাজ করেছিলেন সকলে। তবে অপেক্ষা ছিল শুধু প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার। আজই শেষ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর টানা ২১ দিনের ঘোষিত লকডাউন। অন্যদিকে লাফিয়ে বাড়ছে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ফলে দেশে লকডাউনের সময়সীমা বৃদ্ধির (Extended Lockdown) প্রয়োজনীয়তা নিয়ে অনেকেই আবেদন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। শনিবার ১৩জন মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের পর অনেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাই লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেছেন নিজেদের রাজ্যে। তবে সকল পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে দেশে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী। তবে প্রধানমন্ত্রীর লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি ঘোষণার পরই বিতর্কের ঝড় ওঠে বিরোধীদের তরফ থেকে। তবে সেই পরিস্থিতির আগেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ টুইট করে জানান, “লকডাউনের মেয়াদকাল বৃদ্ধি করা হয়েছে দেশের মানুষের স্বার্থে। এতে সকলের আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওষুধ, খাবার ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য রয়েছে। দেশের প্রতিটি নাগরিকের কাছে আমার বিনীত অনুরোধ আপনারা এই পরিস্থিতিতে এগিয়ে আসুন আপনাদের নিকটস্থ দুঃস্থদের সাহায্য করুন ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন।” পাশাপাশি অমিত শাহ প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের কেন্দ্রের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রেখে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করারও আহ্বান করেন। “তবে এই বর্ধিত লকডাউনে দেশের প্রতিটি নাগরিক যাতে লকডাউনের বিধি নিষেধ ঠিকভাবে মেনে চলেন তাই আরও নজরদারি বাড়াতে হবে”, বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

[আরও পড়ুন:লকডাউনের মেয়াদ বাড়তেই বড় সিদ্ধান্ত, অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল]

প্রধানমন্ত্রীর সুরে সুর মিলিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এদিন করোনা মোকাবিলায় সামনের সারিতে থেকে কাজ করা চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, সংবাদ মাধ্যমের প্রতিটি মানুষকে সম্মান জানানোরও অনুরোধ করেন। কারণ, এই লকডাউনের মত কঠিন পরিস্থিতি সাহস ও পারস্পরিক বোঝাপড়ার মাধ্যমেই কাটিয়ে উঠতে হবে। প্রতিটি মানুষ যদি লকডাউনের নিয়মাবলী মেনে চলেন তাহলে পরিস্থিতি মোকাবিলা করা সহজ হবে।  এই মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে মানুষে বিজয় নিশ্চিত হবে বলেই বিশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের।

[আরও পড়ুন:লকডাউনের মেয়াদ বাড়তেই বড় সিদ্ধান্ত, অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত আইপিএল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement