২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বারবার দেশের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থাগুলি সতর্ক করেছিল। কিন্তু, তারপরও নিজেদের যৌন বাসনা মেটাতে পাকিস্তানি গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের হানি ট্র্যাপে পা দিয়েছিল তারা। এর জেরে রাজস্থান থেকে গ্রেপ্তার হল ভারতীয় সেনার দুই কর্মী। ধৃতরা হল ল্যান্সনায়েক রবি ভার্মা ও সিপাই বিচিত্র বেহেরা। বৃহস্পতিবার দু’জনকে জয়পুর আদালতে তোলা হলে বিচিত্র বেহেরাকে পাঁচদিনের জন্য রাজস্থান গোয়েন্দা পুলিশের হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

[আরও পড়ুন: ক্রিকেটের টান, সৌরভের সঙ্গে দেখা করতে ত্রিপুরা থেকে কলকাতায় পালিয়ে এল কিশোর]

রাজস্থান পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় সিরাত নামে যুবতীর সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় তাদের। কথার মারপ্যাঁচে আস্তে আস্তে দু’জনের সঙ্গেই ঘনিষ্ঠ গড়ে তোলে আদতে পাকিস্তানের গুপ্তচর ওই মহিলা। তারপর মোহময়ী কথায় ভুলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভারতীয় সীমান্ত সংক্রান্ত গোপনীয় তথ্য তাকে জানিয়ে দেয় ধৃত দুই সেনাকর্মী। গোপন সূত্রে এই বিষয়ের খবর পেয়ে অভিযুক্তদের দিকে নজর রাখছিল বিভিন্ন তদন্ত সংস্থা গুলি। গত বুধবার পোখরানে কর্মরত থাকা ওড়িশা ও মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা ওই দুই সেনাকর্মী বাড়ি যাবে বলে যোধপুর রেল স্টেশনে আসে। আর তখনই তাদের গ্রেপ্তার করে জয়পুরে নিয়ে যায় তদন্তকারী সংস্থাগুলি।

জেরায় জানা গিয়েছে, ওই মহিলা যে ভারতীয় নাগরিক নয় তা ঘুণাক্ষরে বুঝতে পারেনি ধৃতরা। তাই কথার ম্যারপ্যাঁচে ভুলে সীমান্ত সংক্রান্ত কিছু তথ্য তাকে বলে ফেলেছে। তবে সেগুলি খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ বা গোপনীয় নয় বলেই তাদের দাবি। যদিও এই কথায় বিশ্বাস করছে না তদন্তকারী সংস্থাগুলি। উলটে ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে আরও জেরা করতে চাইছে তারা। এই ঘটনায় শুধু ওই দু’জনই জড়িত আছে। না আরও কেউ রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: খাবার পৌঁছতে দেরি, বচসার মাঝে গ্রাহকের কানে কামড় ‘সুইগি’র ডেলিভারি বয়ের]

এপ্রসঙ্গে রাজস্থান গোয়েন্দা দপ্তরের এডিজি উমেশ মিশ্র বলেন, ‘চরবৃত্তির অভিযোগে দুই সেনাকর্মীকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি। ধৃতরা পোখরানে কর্মরত ছিল। তাদের বিরুদ্ধে পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের কাছে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তথ্য পাঠানোর অভিযোগ রয়েছে।’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং