১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

জঙ্গি সংগঠনগুলিকে অর্থসাহায্য, হুরিয়ত নেতা মীরওয়াইজকে তলব এনআইএয়ের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 8, 2019 12:57 pm|    Updated: April 8, 2019 3:03 pm

Hurriyat chairman Mirwaiz Umar Farooq to appear before NIA today

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: জাতীয় তদন্তকারী সংস্থার (এনআইএ) কাছে সোমবার হাজিরা দেবে হুরিয়ত চেয়ারম্যান মীরওয়াইজ উমর ফারুক। জঙ্গিসংগঠনগুলিতে অর্থ জোগানোর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সেই বিষয়ে তদন্তের জন্যই তাকে ডেকেছে এনআইএ। ইতিমধ্যেই তার শ্রীনগরের বাড়ি থেকে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দিয়েছে।

হুরিয়ত চেয়ারম্যান মীরওয়াইজ উমর ফারুককে এই নিয়ে তৃতীয়বার তলব করল এনআইএ। এর আগে ১১ মার্চ ও ১৮ মার্চ তাকে ডেকে পাঠিয়েছিল জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। কিন্তু দু’বারই নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে যাবে না বলে জানায় সে। তার বক্তব্য ছিল, দিল্লিতে তার কোনও নিরাপত্তা নেই। তাই দিল্লি যেতে ভয় পাচ্ছে হুরিয়ত নেতা। কিন্তু মীরওয়াইজের এই অজুহাত এবার আর কাজে লাগল না। কারণ এবার এনআইএয়ের তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, দিল্লিতে তার নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে। তাই কার্যত বাধ্য হয়েই দিল্লি রওনা দেয় মীরওয়াইজ উমর ফারুক। জানা গিয়েছে, এনআইএয়ের সদর দপ্তরকে উমর ফারুকের সঙ্গে থাকবে হুরিয়ত নেতা আবদুল গানি ভাট, বিলাল লোন ও মৌলানা আব্বাস আনসারি। সেখানে নিজেদের পারস্পরিক নির্ভরতা নিয়ে কথা বলবে বিচ্ছিন্নবাদী নেতারা। জঙ্গি সংগঠনগুলিকে অর্থ জোগানোর যে অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে উঠেছে, তা নিয়েও গোয়েন্দাদের প্রশ্নে জবাব দেবে তারা।

[ আরও পড়ুন: হিন্দুত্ব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য, উর্মিলার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা বিজেপির ]

শ্রীনগরে হুরিয়তের তরফ থেকে একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, মীরওয়াইজের তলব নিয়ে উচ্চপর্যায়ের হুরিয়ত নেতারা একটি বৈঠক করবেন। তাদের তরফে দাবি করা হয়েছে, তাদের নেতাকে ক্রমাগত হেনস্তা করা হচ্ছে। তাদের রাজনৈতিক অবস্থানের জন্য দলীয় নেতৃত্বকে অপরাধী তকমা দেওয়া হচ্ছে বলেও হুরিয়তের তরফে দাবি করা হয়েছে। এই দল এমন কয়েকটি রাজনৈতিক দলের জোট যারা কাশ্মীরে শান্তি চায়। জঙ্গি সংগঠনে অর্থ জোগানের যে অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে তোলা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

মীরওয়াইজের বিরুদ্ধে বহুদিন থেকেই জঙ্গি সংগঠনকে অর্থ জোগানোর অভিযোগ উঠছে। ফেব্রুয়ারি মাসে পুলওয়ামা কাণ্ডের পর আরও কড়া হয় তদন্তকারী সংস্থা। একাধিক নেতার বাড়িতে চালানো হয় তল্লাশি। তার মধ্যে ছিল হুরিয়ত নেতা মীরওয়াইজের নামও। তল্লাশিতে হুরিয়ত কনফারেন্স নেতা মিরওয়াইজ উমর ফারুকের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে হটলাইন পরিষেবার সরঞ্জাম৷ যার মাধ্যমে পাকিস্তানে যোগাযোগ করা হত৷ এছাড়া তদন্তকারীরা হাতে পেয়েছেন বেশ কিছু নথি৷ যাতে ভারত বিরোধী বিভিন্ন বিষয়ের উল্লেখ রয়েছে৷ মীরওয়াইজের কাকা মৌলবী মনজুর ও মৌলবী শাফাতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। জঙ্গিগোষ্ঠী জামাত-উদ-দাওয়া ও লস্কর-ই-তইবাকে অর্থ জোগানোর অভিযোগেই মীরওয়াইজের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: উপগ্রহ ধ্বংসকারী ’মিশন শক্তি’র ভিডিও প্রকাশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে