ad
ad

রাফালে থাকলে ধ্বংস হত পাকিস্তানের অর্ধেক যুদ্ধবিমান, দাবি প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধানের

রাফালে ভারতীয় বায়ুসেনার মনোবল বাড়াবে, বলছেন এ ওয়াই টিপনিস।

Rafale may destroyed half of Pakistan’s fighter jet.
Published by: Soumya Mukherjee
  • Posted:March 12, 2019 7:55 pm
  • Updated:March 12, 2019 7:55 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় বায়ুসেনার কাছে যদি এখন রাফালে থাকত তাহলে পাকিস্তানের কাছে থাকা ২৪টি যুদ্ধবিমানের মধ্যে ১২টাই ধ্বংস হয়ে যেত। বায়ুসেনার আরও স্কোয়াড্রনের প্রয়োজন আছে বলে উল্লেখ করার সঙ্গে সঙ্গে মঙ্গলবার এই দাবিই করলেন প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান এয়ারমার্শাল এ ওয়াই টিপনিস।

আজ দিল্লিতে একটি সংবাদমাধ্যমের উদ্যোগে আয়োজিত নিরাপত্তা বিষয়ক সামিটে উপস্থিত হয়ে প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান বলেন, “জম্মু ও কাশ্মীরের শ্রীনগর এবং অবন্তিপোরা বেসক্যাম্পে হামলা চালানোই লক্ষ্য ছিল পাকিস্তানের ২৪টি বিমানের। তখন যদি ভারতের হাতে রাফালে থাকত তাহলে ভারতীয় বায়ুসেনা কমপক্ষে ১২টি বিমানকে ধ্বংস করতে পারত। রাফালে ভারতীয় বায়ুসেনার মানসিক জোর আরও বাড়িয়ে দেবে।”

[লোকসভা নির্বাচনে প্রথমবার সংযোজিত হল এই দশটি বিষয়]

সন্ত্রাসবাদকে নিয়ন্ত্রণ করতে উপযুক্ত কৌশল দরকার বলেও অভিমত প্রকাশ করেন এয়ার মার্শাল টিপনিস। বলেন, “আর চুপ করে থাকবে না ভারত। তবে তার জন্য এটাও লক্ষ্য রাখতে হবে, সরকার বদলে গেলেও জঙ্গি দমনের কৌশলে যেন কোন পরিবর্তন না আসে। একটি নির্দিষ্ট পথে যেন তা এগিয়ে চলে।”

[কোনও রাজ্যেই আসন সমঝোতা নয়, রাহুলকে জোর ধাক্কা মায়াবতীর]

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে তৈরি হওয়া উত্তেজনার জের যাতে দু’দেশের খেলা বা সংস্কৃতিতে না পড়ে তার জন্য সওয়াল করেছেন অনেকে। কেউ কেউ আবার খেলা ও সংস্কৃতির মাধ্যমেই সম্পর্কের উন্নতি হবে বলে জোরাল দাবিও তুলেছেন। কিন্তু, দেশ সেই পথে হাঁটুক তা চান না প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান। উলটে দুদেশের মধ্যে হওয়া সমস্ত সাংস্কৃতিক ও খেলা সংক্রান্ত চুক্তি বাতিল করে পাকিস্তানের উপর চাপ সৃষ্টি করার পক্ষে জোরাল সওয়াল করেন তিনি। জঙ্গিদের মদত দেওয়ার জন্য় প্রতিবেশী দেশকে কটাক্ষ করে বলেন, পাকিস্তানের আইন নিয়ন্ত্রণ করে জঙ্গিরাই। বর্তমানে পাকিস্তানের মাটিতে তারা লোক জোগাড়ের মুডে রয়েছে। জঙ্গিদের বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে এই ধরনের পরিবেশ ধ্বংস করা উচিত পাকিস্তান সরকারের।

[ইউটিউব ভিডিও দেখে সন্তান প্রসবের চেষ্টা, মর্মান্তিক পরিণতি অন্তঃসত্ত্বার]

একই সুরে পাকিস্তানকে আক্রমণ করেন প্রাক্তন সেনাপ্রধান বিক্রম সিং-ও। তিনি বলেন, পাকিস্তান কখনওই যা মুখে বলবে তা করবে না। তাই ভারতের উচিত পাকিস্তানের মাটিতে থাকা জঙ্গি ঘাঁটিগুলিতে মৌচাকে যেমন হামলা চালানো হয় সেরকম হামলা করা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ