BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

কালো টাকার পর এবার কর ফাঁকি রুখতে ফের ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ মোদির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 23, 2016 8:49 am|    Updated: December 23, 2016 8:58 am

income tax department has identified an additional 67.54 lakh non-filers who carried out high-value transactions

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিল যদি কালো টাকার বিরুদ্ধে ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ হয়, তাহলে কেন্দ্রের পরবর্তী সিদ্ধান্তও কোনও অভিযানের চেয়ে কম নয়। বছরভর কর ফাঁকি দিয়েছেন যাঁরা, তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করতে চলেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। কর ফাঁকি রুখতে আয়কর বিভাগ, ইডি, সিবিআই একযোগে দেশজুড়ে অভিযানে নামছে।

ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল করেন না, অথচ সাড়া বছর মোটা অঙ্কের লেনদেন করেন, দেশজুড়ে এরকম প্রায় ৬৮ লক্ষ মানুষ এখন আয়কর বিভাগের নজরে রয়েছেন। ২০১৪-১৫ আর্থিক বছরে প্রচুর টাকা লেনদেন করেছেন, তবুও ২০১৫-১৬ আর্থিক বছরে ট্যাক্স রিটার্ন ফাইল করেননি যাঁরা, তাঁদের বিরুদ্ধে এবার কড়া ব্যবস্থা নিতে চলেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক।

বেছে বেছে এমনই ৬৭ লক্ষ ৫৪ হাজার মানুষের তালিকা তৈরি করেছে ‘সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্সেস’ বা সিবিডিটি। বিভিন্ন সূত্র ঘেঁটে, বহু নজরদারির পর তৈরি করা হয়েছে এই ডেটাবেস। গত কয়েক বছর ধরেই আয়কর বিভাগ অত্যন্ত গোপনে ‘নন ফাইলার্স মনিটরিং সিস্টেম’ চালু করেছিল। যাঁরা করের আওতায় পড়েন, অথচ কর দেন না, তাঁদের বিরুদ্ধেই এবার দেশজুড়ে অভিযানে নামল কেন্দ্র।

এবার একে একে এই ব্যক্তিদের বাড়িতে নোটিশ পাঠাবে আয়কর বিভাগ। সিবিডিটি সূত্রে খবর, আর ফাঁকি দেওয়ার কোনও উপায় নেই। হয় আয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কর দিতে হবে, নইলে কড়া শাস্তির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। যাঁরা এখনও ট্যাক্স ফাইল করেননি, তাঁরা ই-ফাইলিং পোর্টালে ঢুকে প্যান কার্ড নম্বর ব্যবহার করে তাঁদের যাবতীয় লেনদেনের হিসাব খতিয়ে দেখতে পারবেন।

সিবিডিটি-র আবেদন, করদাতারা নিজেদের আয়ের সঠিক তথ্য পেশ করুন ও সেই মোতাবেক কর দিন। আয়কর বিভাগ প্রত্যেক লেনদেনের উপর কড়া নজর রাখে বলেই সতর্ক করা হয়েছে। কালো টাকা উদ্ধার দেশজুড়ে অভিযান শুরু করেছেন ইনকাম ট্যাক্স অফিসাররা! এখনও পর্যন্ত ৭৬০ টি জায়গায় খানাতল্লাশি হয়ে গিয়েছে। নোট বাতিলের পর থেকেই এই ধরনের অভিযান আরও বেড়ে গিয়েছে। গত ৮ নভেম্বর থেকে গতকাল পর্যন্ত ৩৫৯০ কোটি টাকারও বেশি কালো ধন উদ্ধার হয়েছে। ৩৫৮৯ জনের বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছে আয়কর দফতরের নোটিশ। নগদে উদ্ধার হয়েছে ৫০০ কোটি টাকারও বেশি। কর ফাঁকি ও হিসাব বহির্ভূত আয়ের ২১৫টি মামলা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটকে হস্তান্তরিত করা হয়েছে। ১৮৫টি মামলায় চলছে সিবিআই তদন্ত।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে