২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

খরচ কমাতে বিমানে যাত্রীদের খাদ্য সরবরাহ বন্ধ করছে ইন্ডিগো

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 10, 2020 1:36 pm|    Updated: April 10, 2020 1:36 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণ রুখতে লকডাউনের দাওয়াই দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। আর সেই তেতো ওষুধের সবচেয়ে মারাত্মক প্রভাব পড়েছে দেশের উড়ান সংস্থাগুলিতে। খরচ সামাল দিতে কেউ কর্মীদের বেতন কমিয়েছেন, তো কেউ আবার বেতনহীন ছুটিতে পাঠিয়েছেন কর্মীদের। এবার লকডাউন পরবর্তী সময় খরচ কমাতে একাধিক পদক্ষেপ করছে বিমানসংস্থাগুলি। ইন্ডিগো জানিয়েছে, উড়ানে যাত্রীদের খাবার দেওয়া (on board meal service) বন্ধ করতে চলেছেন তাঁরা। তবে স্রফ খরচ কমাতে নয়, যাত্রীদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে খবর। যদিও সাময়িক সময়ের জন্য এই পদক্ষেপ করা হচ্ছে বলে জানিয়ে উড়ান সংস্থা।

ভারতের বৃহত্তম বিমান সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তা রণজয় দত্ত কর্মীদের উদ্দেশে একটি চিঠি লিখেছেন। যেখানে তিনি সাম্প্রতিক ভবিষ্যত ও সংস্থার পরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারিত ব্যাখা দিয়েছেন। জানা গিয়েছে, চিঠিতে রণজয় দত্ত নগদের জোগান ও খরচ কমানোর উপর জোর দিয়েছেন। খরচ কমাতে সংস্থার একাধিক পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেছেন তিনি। জানিয়েছেন, মাত্র ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে যাতায়াত করবে তাঁদের বিমান। পাশাপাশি যাত্রীদের খাবার দেওয়া আপাতত বন্ধ রাখবেন তাঁরা। আরও কিছু নতুন নিয়ম আনা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: করোনা ঠেকাতে প্রয়োজন র‍্যাপিড টেস্টের, গোষ্ঠী সংক্রমণ রোধে পরামর্শ আইসিএমআরের]

অসামরিক উড়ান নিয়ন্ত্রক সংস্থা বা ডিজিসিএ’র তরফে সংস্থাগুলিকে বেশকিছু নিয়মনীতি মানতে বলা হয়েছে। জানা গিয়েছে, লকডাউনের সময়সীমা বাড়লেও উড়ান পরিষেবার নিয়মনীতি শিথিল করা হবে। বিমানের দুটি আসনের মধ্যেকার আসনটি ফাঁকা রেখে বুকিং চালু হতে পারে। আবার সিকিউরিটি চেকিংয়ের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এমনকী, সংস্থার কর্মী ও বিমানের যাত্রীদের মাস্ক এবং স্যানিটাইজার দেওয়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এমন আবহে নয়া পদক্ষেপ করল ইন্ডিগো।

[আরও পড়ুন:লকডাউন কি বাড়বে? জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে জানাতে পারেন প্রধানমন্ত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement