BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কেরল ও কর্ণাটকে ঘাপটি মেরে রয়েছে ISIS জঙ্গিরা, রাষ্ট্রসংঘের নয়া রিপোর্টে চাঞ্চল্য

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 25, 2020 2:29 pm|    Updated: July 25, 2020 3:57 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে ঘাপটি মেরে লুকিয়ে রয়েছে আইএস (ISIS)  জঙ্গিরা। বিশেষ করে দুটি রাজ্যে আত্মগোপন করে রয়েছেন। এমনই বলছে রাষ্ট্রসংঘের এক রিপোর্ট। এমনকী, আলকায়দাও ভারত যুব সম্প্রদায়কে টার্গেট করছে বলে খবর। তারাও ভারতের যুব সম্প্রদায়ের মগজধোলাই করছে। 

রাষ্ট্রসংঘের Analytical Support and Sanctions Monitoring Team-এর ২৬ তম রিপোর্ট বলছে, ভারতের কেরল ও কর্ণাটকে ISI জঙ্গিরা লুকিয়ে রয়েছে। এই জঙ্গিগোষ্ঠীর বর্তমান পাখির চোখ ভারত ও তার আশপাশের এলাকা। তাই এই দেশ থেকেই নতুন জঙ্গি তৈরি করছে তারা। তবে পিছিয়ে নেই আল কায়দা গোষ্ঠীও। রিপোর্টে বলা হচ্ছে, তালিবান জঙ্গিদের আড়ালে কাজ করছে আল কায়দা। তারা আফগানিন্তানে বসে ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও মায়ানমারের যুব সম্প্রদায়ের মগজ ধোলাই করছে। তাদেরও লক্ষ্য ভারতের বিভিন্ন অংশে হামলা চালানো। 

[আরও পড়ুন : যুদ্ধে অপরাজেয় হবে ভারত, এবার নৌসেনার সঙ্গী খোদ ‘সমুদ্রের দেবতা’]

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ISIS চাইছে ভারতে নতুন শাখা খুলতে। আর তাই যুব সম্প্রদায়কে টার্গেট করছে তারা। তাদের মধ্যে অনেকেই কেরল (Kerala) ও কর্ণাটকে (Karnataka) সক্রিয় রয়েছে। প্রসঙ্গত, ইতিপূর্বে কেরল থেকে অনেক যবক-যুবতূ আইএসে যোগ দেওয়ার খবর সামনে এসেছিল।  কাশ্মীরেও (Kashmir) অনেক হামলার পিছনে তাদের হাত রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে ওই রিপোর্টে। কিন্তু সেকথা মানতে নারাজ কাশ্মীরের পুলিশ ও সেনা। 

সম্প্রতি একটি বৈঠকেও ভারতীয় সাইবার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সংগঠনগুলি জানিয়েছে, উপমহাদেশ থেকেও জঙ্গি নিয়োগের চেষ্টা চালাচ্ছে ISIS। জেহাদের নামে কমবয়সীদের মগজ ধোলাই করার চেষ্টা করছে তারা। কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট বা আইসিস (ISIS।) অনলাইনে নিয়োগ প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। অনলাইনে প্রশিক্ষণের সময় যুবক-যুবতীরা কীভাবে গোয়েন্দাদের চোখে ধুলো দেবে, তাও তাদের শিখিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আর এই বিষয়টাই সাইবার সিকিউরিটির দায়িত্বে থাকা সংগঠনগুলিকে ভাবাচ্ছে। প্রসঙ্গত, আইএস-এর সঙ্গে যুক্ত ‘দ্য সাপোর্টারস সিকিউরিটি’ নামে একটি সাইবার সিকিউরিটি ম্যাগাজিনের মে মাসের সংখ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যবহারের সময় কেমন সাবধানতা অবলম্বন করলে গোয়েন্দা সংস্থারগুলির চোখে এড়ানো যাবে, তার বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছিল। ২৪ পৃষ্ঠার ওই ম্যাগাজিন স্মার্টফোন এবং কম্পিউটার ব্যবহারের সময় সতর্কতা অবলম্বনের দিকটিও ছিল।

[আরও পড়ুন :শ্রীনগরে তুমুল গুলির লড়াই, খতম দুই সন্ত্রাসবাদী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement