BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

১৫ দিনে আটবার! বিহারে ফের আক্রান্ত কানহাইয়া কুমারের কনভয়

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: February 14, 2020 5:40 pm|    Updated: February 14, 2020 9:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারে ফের আক্রান্ত কানহাইয়া কুমারের কনভয়। এবারও মাঝ রাস্তায় তাঁর কনভয় লক্ষ্য করে ইট ছুঁড়ল দুষ্কৃতীরা। এতে কানহাইয়ার কোনও ক্ষতি না হলেও তাঁর অনুগামীদের কয়েকটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই নিয়ে ১৫দিনে অষ্টমবার আক্রান্ত হলেন জেএনইউয়ের প্রাক্তন ছাত্রনেতা।

kANHAIYA_WEB
শুক্রবার বিহারের বক্সার থেকে আরার উদ্দেশ্যে রওনা দেন কানহাইয়া (Kanhaiya Kumar)। রাস্তায় তাঁর কনভয় লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। কানহাইয়ার আঘাত না লাগলেও, তাঁর সমর্থকদের গাড়িতে ইট পড়ে। এবং তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শুধু তাই নয়, যেখানে কানহাইয়ার সভা হওয়ার কথা ছিল সেখানেও আগুন লাগানো হয় বলে অভিযোগ। অভিযোগের তির বিজেপির বিরুদ্ধে। এর আগেও একাধিকবার কানহাইয়ার কনভয়ে হামলা হয়েছে। গত ১৫দিনে এই নিয়ে অষ্টমবার আক্রান্ত হলেন তিনি।

 

[আরও পড়ুন: পুলওয়ামা হামলায় আখেরে লাভ কার? বর্ষপূর্তিতে রাহুলের প্রশ্নবাণে বিদ্ধ বিজেপি]

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ হওয়ার পর থেকেই এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে তরুণ এই বামপন্থী নেতা। একাধিক সভা-সমাগমে এই আইনের প্রতিবাদ করতে শোনা গিয়েছে তাঁকে। বিহারজুড়ে CAA’র প্রতিবাদে জন-গণ-মন ব়্যালি নামের একটি কর্মসূচিও নিয়েছেন তিনি। গত ৩০ জানুয়ারি থেকে চম্পারণ থেকে বিহারজুড়ে ‘জন গণ মন যাত্রা’ শুরু করেছেন কানহাইয়া। উদ্দেশ্য, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী (Citizenship Amendment Act) জনমত তৈরি করা। কিন্তু, এই কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পদে পদে বাধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে সিপিআই নেতাকে।

[আরও পড়ুন: দেশ ঘুরে পুলওয়ামার শহিদদের পরিবারের দেখা, কারণ জানলে কুর্নিশ করবেন এই যুবককে]

উল্লেখ্য, এর আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলন করতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটকও হতে হয়েছে কানহাইয়াকে। ‘জন-গন-মন’ যাত্রার প্রথম দিনই বিহারের বেতিয়া জেলায় আটক করা হয় কানহাইয়াকে। পরে সমর্থকদের বিক্ষোভের মুখে তাঁকে মুক্তি দেয় পুলিশ।কানহাইয়া বারবার আক্রান্ত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, তাঁর নিরাপত্তা নিয়ে। বামপন্থীদের দাবি, বিজেপি কানহাইয়ার জনপ্রিয়তাকে ভয় পাচ্ছে, আর সেকারণেই তাঁর কণ্ঠরোধের চেষ্টা চলছে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement