০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গুরুপুরবের আগেই খুলছে কর্তারপুর সাহিব করিডর, ঘোষণা অমিত শাহর

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 16, 2021 6:28 pm|    Updated: November 16, 2021 6:28 pm

Kartarpur Corridor will reopen tomorrow, says Amit Shah | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ১৯ নভেম্বর শিখদের পবিত্র উৎসব গুরুপুরবের আগে কর্তারপুর সাহিব করিডর (Kartarpur Sahib Corridor) খোলার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। এই সিদ্ধান্তের কথা জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)।কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাল থেকেই খুলে যাচ্ছে বিখ্যাত শিখ তীর্থক্ষেত্রের করিডর। ফলে বুধবার থেকে ভারত থেকে শিখরা পাকিস্তানে (Pakistan) যেতে পারবেন। এই বিষয়ে মঙ্গলবার টুইট করেন অমিত শাহ।

টুইটে অমিত শাহ জানান, “একটি বড় সিদ্ধান্ত, যার ফলে বিরাট সংখ্যক শিখ তীর্থযাত্রীরা উপকৃত হবেন। আগামিকাল, ১৭ নভেম্বর থেকে ফের খুলে দেওয়া হবে কর্তারপুর সাহিব করিডর। শ্রী গুরুনানক দেবজি (Guru Nanak) এবং শিখ সম্প্রদায়ের প্রতি শ্রদ্ধা থেকেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদি সরকার ।” অন্য একটি টুইটে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লিখেছেন, “গোটা দেশ শ্রী গুরুনানক দেবজির প্রকাশ উৎসব পালনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। আমি নিশ্চিত মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্থ গোটা দেশে খুশি হবে।”

[আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়ায় গান্ধী মূর্তি ভাঙার পালটা! গুজরাটে গডসের মূর্তি ভাঙলেন কংগ্রেস কর্মীরা ]

জানা গিয়েছে, কোভিড (Covid 19) বিধি মেনে তবেই তীর্থে যেতে পারবেন শিখরা। মানতে হবে শারীরিক দূরত্ববিধিও। এছাড়াও টিকার দুটি ডোজ, ৭২ ঘণ্টা আগে আরটি-পিসিআর (RTPCR) নেগেটিভ টেস্ট রিপোর্ট বাধ্যতামূলক থাকছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে কর্তারপুর সাহিব করিডর খোলা হয়েছিল। কোভিডের কারণে ২০২০ সালের মার্চ মাসে বন্ধ করে দেওয়া হয় কর্তারপুর করিডর। এর মধ্যে গত সপ্তাহে পাকিস্তানের তরফে ভারতের কাছে কর্তারপুর সাহিব করিডর খোলার আবেদন করা হয়। অন্যদিকে দু’দিন আগে পাঞ্জাবের বিজেপি নেতারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করে কর্তারপুর সাহিব করিডর খোলার আবেদন করেন। এই মর্মে একটি স্মারকলিপিও জমা দিয়েছিলেন তাঁরা।অবশেষে সেই আবেদনে মান্যতা দিল কেন্দ্রীয় সরকার। খুলে গেল কর্তারপুর করিডর।

[আরও পড়ুন: আগরতলা পুরভোট: ৯ প্রতিশ্রুতি দিয়ে ‘নবরত্ন’ ইস্তেহার প্রকাশ তৃণমূলের]

উল্লেখ্য, ৪ কিমি রাস্তা পার করে ভারত থেকে পাকিস্তানের কর্তারপুরে যান শিখ তীর্থযাত্রীরা। এর জন্য ভারতীয় শিখদের কোনওরকম ভিসা লাগে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে