১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘অসহনীয়! পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা দেখে চোখে জল আসছে’, মন্তব্য মাদ্রাজ হাই কোর্টের

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 16, 2020 9:14 pm|    Updated: May 16, 2020 9:14 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল পরিযায়ী শ্রমিকদের বিষয় সিদ্ধান্ত রাজ্যের উপর ছাড়া হোক। কিন্তু মাদ্রাজ হাই কোর্টের পরিযায়ী শ্রমিকদের পরিস্থিতিকে ‘অসহনীয়’ বলে উল্লেখ করল। বিচারপতিদের কথায়, ‘অসহনীয়! পরিযায়ী শ্রমিকদের এই দুর্দশা দেখলে চোখে জল আসে।’ স্বতঃপ্রণোদিত মামলায় এই ভাষায় রাজ্য-সহ কেন্দ্রকে কার্যত পরিহাস করল মাদ্রাজ হাই কোর্ট। কেন্দ্র-রাজ্য উভয় পক্ষকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রাজ্য ভিত্তিক স্টেটাস রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

শনিবার বিচারপতি এন কিরুবাকরণ ও বিচারপতি আর হেমলতার ডিভিশনে বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হয়। সেই শুনানিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বার্থরক্ষায় তামিলনাড়ু সরকার এবং কেন্দ্র ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেন বিচারপতিরা। পাশাপাশি এদিন বিচারপতিরা জানতে চান, “পরিযায়ী শ্রমিকদের চাহিদা, স্বার্থ ও জীবনযাপন সুরক্ষিত করতে কী পদক্ষেপ করা হয়েছে?” বিচারপতিদের কথায়, “এটা মানব বিপর্যয়। এর চেয়ে বেশি কিছু না”। তাঁরা আরও বলেন, “যে উদ্যম নিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকরা বাড়ি ফিরছেন, সেটা দেখলে করুণা হয়। অনেকে আবার রাস্তায় দুর্ঘটনার মুখে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন।” বিচারপতিদের পরামর্শ, প্রত্যেক রাজ্যের কর্তব্য মানবিকতার খাতিরে দুর্গত পরিযায়ী পাশে দাঁড়ানো।

[আরও পড়ুন : পাঞ্জাব থেকে কাশ্মীরে গিয়ে মৃত শিখ ধর্মাবলম্বী, চাঁদা তুলে শেষকৃত্য করলেন মুসলিমরা]

বিচারপতি এন কিরুবাকরণ ও আর হেমলতা বলেন, “গত মাসে সংবাদমাধ্যমে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশা দেখে চোখে জল ধরে রাখা যাচ্ছিল না। এটা আদতে মানব বিপর্যয়। শনিবার কোর্টের ভর্ৎসনার পরেই তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই পালনিস্বামী বলেছেন, “আপনারা শিবিরে থাকুন আর সরকারি সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করুন।”

[আরও পড়ুন : মানবিকতার নজির! পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে রাস্তায় নামলেন রাহুল গান্ধী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement