২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মহারাষ্ট্রে নতুন সরকার গঠনের তোড়জোড় বিজেপির, মন্ত্রিসভায় কী কী পাচ্ছেন শিব সেনার বিক্ষুব্ধরা?

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 30, 2022 9:01 am|    Updated: June 30, 2022 9:10 am

Maharashtra political crisis: Devendra Fadnavis may take oath as new CM | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপি যেন সুযোগের অপেক্ষাতেই ছিল। একনাথ শিণ্ডের (Eknath Shinde) নেতৃত্বাধীন শিব সেনা বিধায়কদের বিক্ষোভ সেই সুযোগই এনে দিয়েছিল গেরুয়া শিবিরকে। আর সুযোগ পেতেই ছক্কা হাঁকালেন দেবেন্দ্র ফড়ণবিসরা (Devendra Fadnavis)। মহারাষ্ট্রে ‘অপারেশন কমল’ সফল। আরও একটি নির্বাচিত সরকার ফেলতে ‘সফল’ বিজেপি! বুধবার রাতে উদ্ধব ঠাকরে ইস্তফা দিতেই বিজেপি পার্টি অফিসে মিষ্টি বিতরণ শুরু হয়। দেবেন্দ্র ফড়ণবিসের মুখে চওড়া হাসির রেখা দেখা যায়। সব ঠিক থাকলে আড়াই বছরের ব্যবধানে তিনিই ফের মহারাষ্ট্রের মসনদে বসতে চলেছেন।

সূত্রের খবর, মানুষের দ্বারা নির্বাচিত উদ্ধব সরকার ফেলার ‘লক্ষ‌্যপূরণ’ হতেই সরকার গড়তে উড়েপড়ে লেগে পড়েছে বিজেপি (BJP)। শোনা যাচ্ছে ১ জুলাই মুখ‌্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন দেবেন্দ্র ফড়ণবিস। গুয়াহাটির হোটেলে থাকা শিণ্ডে শিবির এবং মহারাষ্ট্রের বিজেপি (BJP) শিবির পরিস্থিতির দিকে নিবিড় নজর রাখছিল। রাতেই মুম্বইয়ের একটি হোটেলে বিজেপির পরিষদীয় কমিটির বৈঠক হয়। সেই বৈঠকেই আগামী দিনের রণকৌশল তৈরি হয়ে যায়। রাতেই রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে আসেন ফড়ণবিস।

[আরও পড়ুন: ইস্তফা দিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে]

অন‌্যদিকে, রায় ঘোষণার পরেই শিণ্ডে-সহ বিদ্রোহী বিধায়করা অসম থেকে গোয়া উড়ে আসেন। রাতে বিজেপি শাসিত প্রতিবেশী রাজ‌্য গোয়ার একটি পাঁচতারা হোটেলে উঠেছেন তাঁরা। সেখান থেকে তাঁদের সরাসরি মহারাষ্ট্র বিধানসভায় নিয়ে যাওয়া হবে বলেই ঠিক হয়েছে। যদিও মহারাষ্ট্র বিজেপির সভাপতি চন্দ্রকান্ত পাটিল তাঁদের অনুরোধ করেছেন, বৃহস্পতিবার মুম্বই না গিয়ে একেবারে শুক্রবার শপথের সময় যেতে। আসলে বিজেপি কোনওরকম ঝুঁকিই নিতে চাইছে না। শোনা যাচ্ছে দেবেন্দ্র ফড়ণবিস ফর্মুলা সিক্স মেনে নতুন মন্ত্রিসভা সাজাবেন। অর্থাৎ ৬ জন বিধায়ক পিছু একজন করে মন্ত্রী। এই মুহূর্তে নির্দল এবং প্রহার পার্টি মিলিয়ে একনাথ শিণ্ডে শিবিরের বিধায়ক সংখ্যা পঞ্চাশের আশেপাশে। তাঁদের মধ্যে ৮ জন মন্ত্রী রয়েছেন। তাঁদের প্রত্যেককেই ফের মন্ত্রী করা হবে। এছাড়াও আরও দুই প্রতিমন্ত্রী পেতে পারে শিব সেনা। আর বিদ্রোহীদের নেতা একনাথ শিণ্ডেকে করা হতে পারে উপমুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে তোড়জোড়ের মধ্যেই উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিন ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের]

বিদ্রোহী বিধায়কদের জন্যই বিজেপির লক্ষ্যপূরণ হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে পদত্যাগ করতে হয়েছে। যদিও উদ্ধবের পদত্যাগে বিদ্রোহী শিবিরের অনেকেই যেন খুশি নন। বিদ্রোহী শিবিরের এক বিধায়ক বলছিলেন, আমাদের লড়াই ছিল এনসিপি (NCP) এবং কংগ্রেসের (Congress) বিরুদ্ধে। সেই লড়াইয়ে আমরা নিজেদের নেতার বিরুদ্ধেই লড়াই করে ফেললাম। আমরা শিব সেনা ছেড়ে যাব না। সূত্রের খবর, বিদ্রোহী শিবিরের অনেক বিধায়কই নাকি এখনও উদ্ধব ঠাকরেকেই নিজেদের নেতা বলে মনে করেন। তাঁরা আলাদা দল গড়ার বা উদ্ধবকে শিব সেনা থেকে বিতাড়িত করার পক্ষে নন। বরং তাঁরা চাইছেন, উদ্ধবের সঙ্গে সন্ধি করে নিতেই।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে