BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দেশের বেশিরভাগ জেলবন্দি অপরাধীই মুসলিম এবং দলিত, বলছে রিপোর্ট

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 30, 2020 1:41 pm|    Updated: August 30, 2020 4:50 pm

Majority prisoners in Indian jails are Dalits and Muslims

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে জেলবন্দি অপরাধীদের মধ্যে মুসলিম, দলিত ও আদিবাসীদের সংখ্যা বেশি। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো (NCRB) প্রকাশিত নয়া রিপোর্ট বলছে. মোট জেলবন্দি অপরাধীদের মধ্যে এঁরা প্রায় দুই তৃতীয়াংশ। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ২০১৯ সালে মুসলিম সম্প্রদায়ের ক্ষেত্রে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার তুলনায় বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা বেশি। পরিসংখ্যান বলছে, সবচেয়ে বেশি মুসলিম অপরধী রয়েছে উত্তরপ্রদেশে। আর মধ্যপ্রদেশে অপরাধী সাব্যস্ত হওয়া আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য।

পরিসংখ্যান থেকে আরও একটি বিশেষ বিষয় সামনে এসেছে জেলের বাইরে থাকা মুসলিম (Muslim), দলিত (Dalit) ও আদিবাসীর (Tribal) চেয়ে এই তিন সম্প্রদায়ের বন্দির সংখ্যা অনেকটাই বেশি। ২০১৯ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশজুড়ে জেলবন্দি দলিত অপরাধীর সংখ্যা ২১.৭ শতাংশ। আবার বিচারাধীন তফশিলি উপজাতি সংখ্যা ২১ শতাংশ। ২০১১ জনগণনা অনুযায়ী ভারতে এদের সংখ্যা ১৬.৬ শতাংশ। সাজাপ্রাপ্ত মধ্যে তফশিলি জাতির অপরাধী ১৩.৬ শতাংশ ও বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা ১০.৫ শতাংশ। ২০১১ জনগণনা অনুসারে ভারতে আদিবাসীর সংখ্যা ৮.৬ শতাংশ।

[আরও পড়ুন : এবার খাস রাজধানী দিল্লিতে গণপিটুনি, চোর সন্দেহে পিটিয়ে মারা হল ২৩ বছরের যুবককে]

দেশের মোট জনসংখ্যার ১৪.২ শতাংশ মুসলিম। যদিও দেশ জুড়ে জেলবন্দি মুসলমান অপরাধীর সংখ্যা ১৮.৭ শতাংশ ও বিচারাধীন বন্দির সংখ্যা ১৮.৭ শতাংশ। এই সংখ্যাটা সবচেয়ে বেশি রয়েছে উত্তরপ্রদেশে। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর ২০১৫-এর পরিসংখ্যানের তুলনায় ২০১৯ সালে মুসলমান অপরাধীর সংখ্যা বিচারাধীন বন্দির তুলনায় বাড়ছে। গত পাঁচ বছরে তফশালি জাতি-উপজাতির ক্ষেত্রে অবস্থার খুব একটা বদল হয়নি।

মুসলমান অপরাধী ও বিচারাধীন বন্দির সংখ্যায় শীর্ষে উত্তরপ্রদেশ। এরপরেই রয়েছে বাংলা ও মহারাষ্ট্র। আবার উত্তরপ্রদেশেই দলিত বিচারাধীন বন্দি ও অপরাধীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। এরপরই রয়েছে বিহার, পাঞ্জাব। তফশিলি জাতি বিচারাধীন বন্দির ও অপরাধীর সংখ্যা বেশি মধ্যপ্রদেশে।

[আরও পড়ুন : ৪৮ ঘণ্টায় জোড়া গণপিটুনি অসমে, মৃত এক যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে