২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাম মন্দিরের ভূমিপুজোয় রাষ্ট্রপতিকেও আমন্ত্রণ জানানো যেত, দলিত বিতর্কে ঘি দিলেন মায়াবতী

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 9, 2020 9:00 pm|    Updated: August 9, 2020 9:00 pm

An Images

‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ গত ৫ আগস্ট মহাধুমধামে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের (Ram Temple) ভূমিপুজো সম্পন্ন হয়েছে। পৌরহিত্য করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। ৪০ কেজি রুপোর ইটও পোঁতেন তিনি। কিন্তু ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন না রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। আর এই নিয়েই এবার মুখ খুললেন বিএসপি (BSP) সভানেত্রী মায়াবতী (Mayawati)। তাঁর মতে, অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি কোবিন্দকেও আমন্ত্রণ জানানো উচিত ছিল। এতে সমাজে ভাল বার্তা পাঠানো যেত।

[আরও পড়ুন: এবার যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্কুল খুলে দেওয়া উচিত, মনে করছেন WHO’র প্রধান গবেষক]

রবিবার দলের তরফ থেকে একটি বিবৃতি জারি করেন মায়াবতী। সেখানেই উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘‌‘‌৫ আগস্ট অযোধ্যায় ভূমিপুজোর অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকেও (Ramnath Kovind) আমন্ত্রণ জানানো উচিত ছিল। ওই অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি উপস্থিত থাকলে দেশের দলিতদের কাছে ভাল বার্তা দিত। অনেক দলিত সম্প্রদায় অভিযোগ করেছে তাঁদের এই অনুষ্ঠানে ডাকা হয়নি, সেক্ষেত্রে রাষ্ট্রপতিকে ডাকা হলে ভাল হত।’‌’‌ এর আগে গত ৩১ জুলাই টুইট করে জুনা আখড়ার একমাত্র দলিত মহামণ্ডলেশ্বর স্বামী প্রভুনানন্দনকে ওই অনুষ্ঠানে না ডাকার জন্যও উষ্মাপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। টুইটে লিখেছিলেন, স্বামী প্রভুনানন্দনকে ওই অনুষ্ঠানে ডাকলে সংবিধানের যে লক্ষ্য, অর্থাৎ জাতপাতহীন সমাজ গড়ার দিকে আর একধাপ এগোনো যেত।

 

এর পাশাপাশি এদিনের বিবৃতিতে পরশুরামের মূর্তি গড়া নিয়ে সমাজবাদী পার্টির বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বলেন, ব্রাহ্মণ ভোটব্যাংকের দিকে তাকিয়েই লখনউয়ে পরশুরামের ১০৮ ফুট উঁচু মূর্তি তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সপা সরকার।

[আরও পড়ুন: “জনতা রোজগার চাইলেই ধর্মের নেশা ধরিয়ে দেয়”, মোদি সরকারকে খোঁচা বক্সার বিজেন্দরের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement