২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দিল্লি হত্যাকাণ্ড: আফতাবের বিরুদ্ধে ‘থার্ড ডিগ্রি’ নয়, ৫ দিনের মধ্যে নারকো টেস্টের নির্দেশ আদালতের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 18, 2022 8:29 pm|    Updated: November 18, 2022 8:29 pm

Mehrauli killing: Court directs police not use 3rd degree against Aaftab Amin Poonawala | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লি হত্যাকাণ্ডের (Delhi Murder Case) অভিযুক্ত আফতাবের বিরুদ্ধে জোর জবরদস্তি নয়। দিল্লি পুলিশকে নির্দেশ দিল দিল্লির এক আদালত। দিল্লির মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, শ্রদ্ধা খুনে অভিযুক্ত আফতাবের বিরুদ্ধে কোনওরকম থার্ড ডিগ্রি ব্যবহার করা যাবে না। তবে পুলিশকে তার নারকো টেস্ট করতে হবে আগামী পাঁচ দিনের মধ্যেই।

দিল্লির (Delhi) রোহিনির একটি ফরেনসিক ল্যাবে আফতাবের নারকো টেস্ট হওয়ার কথা। আদালতই নারকো টেস্টের অনুমতি দিয়েছিল। এবার বেঁধে দেওয়া হল সময়সীমাও। আগামী পাঁচদিনের মধ্যেই হবে নারকো টেস্ট। আসলে ধরা পড়ার পর থেকেই অভিযুক্ত আফতাব (Aftab Poonawalla) বারবার বয়ান বদল করে পুলিশকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ। নারকো টেস্ট হলে, পুরো ঘটনার সত্যতা সামনে আসবে বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে মেয়ের হত্যাকাণ্ড নিয়ে আরও বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন শ্রদ্ধার বাবা বিকাশ ওয়াকার। তাঁর দাবি, শুধু আফতাব নয়, তার পরিবারও শ্রদ্ধার খুনের সঙ্গে যুক্ত। আফতাবকে প্রকাশ্যে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের দাবিতে জোরালো যুক্তি মামলাকারীর, আরজি শুনলই না সুপ্রিম কোর্ট]

উল্লেখ্য, শ্রদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে খুনের পর তাঁর দেহ ৩৫টি টুকরো করে লিভ-ইন পার্টনার আফতাব। এরপর দিল্লি শহরের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়েছিল সে। ১৮ দিন ধরে এই কাজ করে। শ্রদ্ধার অপরাধ ছিল প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়া। অথচ আফতাবকে ভালবেসে পরিবার, চাকরি, শহর ছেড়ে চলে আসেন দিল্লিতে। দু’জনের আলাপ হয়েছিল কল সেন্টারের চাকরি সূত্রে। যদিও বিধর্মীর প্রেমে পড়া পছন্দ ছিল না শ্রদ্ধার পরিবারের। এমন অবস্থায় লিভ-ইন করার সিদ্ধান্ত নেন শ্রদ্ধা-আফতাব। তাঁরা দিল্লির মেহেরৌলিতে ফ্ল্যাট ভাড়া করে থাকছিলেন।

[আরও পড়ুন: কংগ্রেস নয়! বিজেপিকে হারাতে পারে তৃণমূলই, মেঘালয়ে দাঁড়িয়ে ফের দাবি অভিষেকের]

মেয়ের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে সরাসরি লাভ জিহাদের (Love Jihad) অভিযোগ তোলেন শ্রদ্ধার বাবা বিকাশ ওয়াকার। বলেন, এই খুনের নেপথ্যে লাভ জিহাদ থাকতে পারে। দিল্লি শহরের এই হত্যাকাণ্ডের (Delhi Murder Case) বর্বরতায় গোটা দেশে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। সকলেই নৃশংস খুনির চরম শাস্তির দাবি করেছেন। শ্রদ্ধার বাবাও আফতাবের মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানিয়েছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে