১০ বৈশাখ  ১৪২৬  বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের অশ্লীলতার দায়ে অভিযুক্ত বিজেপি মন্ত্রী। এবার ত্রিপুরায়। নিজেরই সহকর্মীর সঙ্গে অভব্য আচরণের অভিযোগ উঠল বিজেপির তরুণ নেতা তথা ত্রিপুরার মন্ত্রী মনোজকান্তি দেবের বিরুদ্ধে। ওই মন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে বামফ্রন্ট। স্থানীয় কয়েকটি ছোট রাজনৈতিক দলও ওই মন্ত্রীর পদত্যাগ চেয়েছেন।

[প্রিয়াঙ্কার রোড শো’র সাফল্যের জের, কংগ্রেসকে জোটের প্রস্তাব সপা-বসপার!]

দিন দুই আগেই ত্রিপুরায় যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানে একটি জনসভা করেন তিনি । বেশ কয়েকটি প্রকল্পেরও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। যে মঞ্চে প্রধানমন্ত্রী প্রকল্পগুলি উদ্বোধন করেন, সেই মঞ্চেই বেফাঁস কীর্তি ত্রিপুরার মন্ত্রী মনোজকান্তি দেবের। অভিযোগ, মঞ্চে দাঁড়িয়ে এক সহকর্মী তথা রাজ্যের আরেক আদিবাসী মন্ত্রী সান্ত্বনা চাকমার কোমরে হাত দেন তিনি। সান্ত্বনা চাকমা ত্রিপুরার সমাজকল্যাণ এবং সমাজবিদ্যা বিভাগের মন্ত্রী। একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মনোজ সান্ত্বনা কোমরে হঠাৎই আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করেন। বুঝতে পেরে চকিতে হাত সরিয়ে দেন সান্ত্বনা। এই ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে নেটদুনিয়ায়।

[রাহুলের অনুপস্থিতিতে অনিশ্চিত বিরোধীদের স্ট্র্যাটেজি বৈঠক]

এদিকে, ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই এনিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। মনোজকান্তি দেবের পদত্যাগ দাবি করেছে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বামফ্রন্ট। ত্রিপুরার বামফ্রন্টের কনভেনর বিজন ধর বলেছেন, “মনোজকান্তি দেব একজন মহিলা মন্ত্রীকে অত্যন্ত আপত্তিকরভাবে স্পর্শ করেছেন। যে মঞ্চে তিনি এই কাজ করেছেন,সেই মঞ্চ থেকেই ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। মনোজকান্তি দেবকে এক্ষুণি বরখাস্ত করে তাঁকে গ্রেপ্তার করা উচিত।” বামেদের পাশাপাশি কয়েকটি ছোট দলও একই দাবি জানাচ্ছে। যদিও, সরকারপক্ষ এই দাবিতে আমল দিতে নারাজ। ত্রিপুরায় বিজেপির মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য দাবি করেছেন, বামেদের হাতে অন্য আর কোনও ইস্যু নেই, তাই নন ইস্যুকে ইস্যু করার চেষ্টা করছে। ওই মহিলা মন্ত্রী নিজেও কোনও অভিযোগ করেননি।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং