৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘‘নরেন্দ্র মোদি আমাকে ও আমার পরিবারকে ঘৃণা করলেও প্রতিদানে ভালবাসা দেব আমি।’’ শুক্রবার হিমাচল প্রদেশের উনাতে জনসভা করতে গিয়ে এই মন্তব্যই করলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। তিনি বলেন, “মোদি হয়তো আমার এবং প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ও রাজীব গান্ধীর বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়াচ্ছেন। কিন্তু, এর প্রতিদানে ভালবাসা ফেরত দেব আমি।”

হিমাচল প্রদেশের সভামঞ্চ থেকে নোট বাতিলপণ্য পরিষেবা কর (জিএসটি) চালু করার জন্য বিজেপি সরকারের প্রবল সমালোচনা করেন তিনি। বলেন, “জিএসটি বা গব্বর সিং ট্যাক্সের জন্য প্রচুর মানুষের ব্যবসা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। দেশের মাত্র ১৫জন ধনী ব্যবসায়ীকে সুবিধা দিতে গিয়ে বাকি নাগরিকদের ক্ষতি হয়েছে। রাজনীতির সঙ্গে কবাডি খেলতে গিয়ে নিজের কোচ এলকে আডবানীকেই ঘুষি মেরেছেন তিনি।”

[আরও পড়ুন- ফের আকাশসীমা লঙ্ঘন, ভারতে ঢুকে পড়া পাক বিমানকে নামাল বায়ুসেনা]

এরপরই ফের “চৌকিদার চোর হ্যায়” বলে স্লোগান তোলেন কংগ্রেস সভাপতি। রাফালে চুক্তি রূপায়ণ করতে গিয়ে অনিল আম্বানিকে মোদি সুবিধা পাইয়ে দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন। তাঁর সুরে সুর মিলিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করেন স্থানীয় কংগ্রেস নেতারাও।

[আরও পড়ুন- শিখদাঙ্গা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য স্যাম পিত্রোদার, মোদির নিশানায় কংগ্রেস]

হিমাচল প্রদেশের হামিরপুর লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী রাম লাল ঠাকুরের হয়ে প্রচার করতে শুক্রবার উনাতে নির্বাচনী জনসভা করেন রাহুল। এবারের লোকসভা নির্বাচনে হিমাচল প্রদেশে এটাই রাহুলের প্রথম সভা। আগামী ১৯ মে হিমাচল প্রদেশের শিমলা, মান্ডি, হামিরপুর ও কাংরায় ভোটগ্রহণ হবে। তার আগে সামনের সপ্তাহে শিমলা ও মান্ডি আসনের কংগ্রেস প্রার্থীর হয়ে সোলানে নির্বাচনী জনসভা করবেন রাহুল।

সম্প্রতি দিল্লিতে ভোট প্রচারে গিয়ে প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীকে আক্রমণ করেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। বলেছিলেন, “প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে যুদ্ধজাহাজ আইএনএস বিরাটে করে শ্বশুরবাড়ির লোকদের নিয়ে ছুটি কাটিয়েছিলেন রাজীব গান্ধী।” শুক্রবার এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে রাহুল জানান, ওই সময় গান্ধী পরিবার আইএনএস বিরাটে ছিল৷ তবে তাঁরা মোটেও সেখানে ছুটি কাটাতে যাননি৷ রাজীব গান্ধী সরকারি কাজেই সেখানে গিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গেই গিয়েছিলেন রাহুল৷ তাঁরা কেউ ছুটি কাটাতে যাননি৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং