২২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ 

Advertisement

‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ গাড়ি কিনলেন দেশের ধনীতম ব্যক্তি মুকেশ আম্বানি! অবাক নেটিজেনরা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 17, 2019 7:59 pm|    Updated: September 17, 2019 7:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার। দেশের বৃহত্তম ব্যবসায়িক সাম্রাজ্যের মালিক। ভারতের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। এশিয়া তথা বিশ্বের ধনীতম ব্যক্তিদের তালিকায় একেবারে প্রথম সারিতে উচ্চারিত হয় তাঁর নাম। কথা হচ্ছে মুকেশ আম্বানির। এ হেন ধনী ব্যক্তি কিনা এবার কিনলেন ‘সেকেন্ড হ্যান্ড’ গাড়ি! সদ্যই এই তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে। যা রীতিমতো অবাক করেছে নেটিজেনদের।

[আরও পড়ুন: তেলের দাম বৃদ্ধির আশঙ্কায় বড়সড় ধস শেয়ার বাজারে, রেকর্ড পতন সেনসেক্সে]

বিশ্বের যাবতীয় নামী এবং দামি গাড়ি ঠাঁই পেয়েছে মুকেশ আম্বানির গ্যারেজে। আর হওয়াটাই স্বাভাবিক। কদিন আগেই রোলস রয়েসের কালিনান গাড়িটি কিনেছিলেন। এবারেও কিনলেন একেবারে অত্যাধুনিক বিলাসবহুল গাড়ি। কিন্তু, সেটি সেকেন্ড হ্যান্ড। আম্বানির গ্যারেজে প্রবেশ করা সর্বশেষ গাড়িটি হল টেসলা এস-১০০ মডেলের। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি ইলেকট্রিক গাড়িটি ২০১২-তেই লঞ্চ হয়েছিল। কিন্তু, ভারতে এল এই প্রথম। মার্কিন মুলুকে গাড়িটির দাম কমবেশি ৭৫ লক্ষ টাকা। কিন্তু, ভারতে বিভিন্ন রকমের কর যুক্ত হওয়ায় দাম প্রায় দেড় কোটি। গাড়িটি সমস্তরকম অত্যাধুনিক সুবিধাযুক্ত এবং পরিবেশবান্ধব। মাত্র ৪২ মিনিট চার্জ দিয়ে গাড়িটিতে যাওয়া যাবে ৩৯৬ কিলোমিটার পর্যন্ত। মাত্র ৪.৩ সেকেন্ডে এটি ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত গতি তুলতে পারে। দেড় কোটি দিয়েই গাড়িটি কিনে নিয়েছেন আম্বানি।

Car

[আরও পড়ুন: ‘সার্জিক্যাল ও এয়ারস্ট্রাইক মানুষকে আনন্দ দিয়েছে’, দাবি অমিত শাহর]

গাড়িটির রেজিস্ট্রেশন হয়েছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের নামে। মজার কথা হল, গাড়িটির রেজিস্ট্রেশন দেখানো হয়েছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ গাড়িটির দ্বিতীয় মালিক। প্রথম মালিক অন্য একটি সংস্থা। আসলে, গাড়িটি বিদেশে তৈরি হয়। তাই বিদেশ থেকেই তা আমদানি করা হয়েছে। এখন বিদেশ থেকে সরাসরি গাড়ি আমদানি করে ভারতীয় সংস্থার নামে রেজিস্ট্রেশন করানো বেশ ঝামেলাপূর্ণ কাজ। তাই, প্রথমে গাড়িটিকে ওই বিদেশি সংস্থার মালিকানাধীন দেখিয়ে তারপর তা রিলায়েন্স ইন্ডিস্ট্রির নামে ট্রান্সফার করা হয়। সে অর্থে দেখতে গেলে গাড়িটি হাতবদল করে এসেছে। তাই একে সেকেন্ড হ্যান্ড বলাই যায়। তাছাড়া রেজিস্ট্রেশনের নথিতেই লেখা রয়েছে, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রি গাড়িটির ‘সেকেন্ড ওনার’।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement