২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২২ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপিত হচ্ছে গোটা দেশে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং নেতাজির প্রতিকৃতিতে মাল্যদানের মাধ্যমে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন দেশবাসী। স্কুল,কলেজে পড়ুয়ারাও দেশনায়কের স্মৃতিচারণার মাধ্যমে তাঁর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করছেন।

[কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে এবার মোদির হাতিয়ার রাজীব গান্ধীর মন্তব্য]

দলমত নির্বিশেষে সুভাষচন্দ্রকে স্মরণ করছে রাজনৈতিক মহলও। দিনের শুরুতেই দেশনায়ককে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘আমি নেতাজিকে অভিবাদন জানাচ্ছি। তিনি এমন একজন নায়ক ছিলেন যিনি দেশের সংহতি রক্ষার জন্য নিজেকে সমর্পণ করেছিলেন। ভারতকে স্বাধীন করার জন্য আত্মত্যাগ করেছিলেন। আমরা তাঁর সব আদর্শ বাস্তবায়িত করার লক্ষ্য বদ্ধপরিকর।’

[শ্রীরামকৃষ্ণের ত্যাগ ও শুদ্ধতার দৃষ্টান্তে প্রভাবিত নেতাজির যৌনচেতনা]

নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। টুইটারে তিনি দেশবাসীকে ‘কদম কদম বাড়ায়ে যা…’ – এই আদর্শে অনুপ্রাণিত হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে দেশনায়ককে সশ্রদ্ধ প্রণাম জানিয়েছেন মমতা। কংগ্রেসের তরফেও টুইটের মাধ্যমে সুভাষচন্দ্র বসুকে শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে। একসময়ের সভাপতিকে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে কংগ্রেস নেতারা বলেছেন, “নেতাজি একজন প্রকৃত জাতীয়তাবাদী ছিলেন। তিনি একজন অনমনীয় দেশপ্রেমিক ছিলেন। ভারতের সেরা স্বাধীনতা সংগ্রামীদের মধ্যে একজন ছিলেন তিনি। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে এবং আজাদ হিন্দ ফৌজ তৈরিতে তাঁর অবদান দেশবাসী কোনওদিন ভুলবে না। জাতীয় কংগ্রেস তাঁকে মনে রাখবে, দলের অন্যতম শক্তিশালী সভাপতি হিসেবে।” নেতাজি জয়ন্তী উপলক্ষ্যে দেশজুড়ে ‘দেশপ্রমে দিবস’ হিসেবে পালনের ডাক দিয়েছে ফরওয়ার্ড ব্লক। রাজনৈতিক দলগুলি ছাড়াও বিভিন্ন সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থাও দেশনায়ককে আজ শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং