BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নাশকতার আশঙ্কা, স্বাধীনতা দিবস বয়কটের ডাক উত্তর-পূর্বের জঙ্গি সংগঠনগুলির

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 13, 2020 7:44 pm|    Updated: August 13, 2020 7:44 pm

An Images

প্রণব সরকার, আগরতলা: স্বাধীনতা দিবস বয়কট করার ডাক দিল উত্তর-পূর্বের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনগুলি। মোট ৬টি জঙ্গিগোষ্ঠী আগামী ১৫ আগস্ট দিনটিতে বনধ পালনের আহ্বান জানিয়েছে। সেদিন সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত মোট ১১ ঘণ্টা ত্রিপুরা বনধের ডাক দিয়েছে রাজ্যের নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন এনএলএফটি, কামতাপুরী লিবারেশনের মতো জঙ্গি গোষ্ঠীগুলি।

[আরও পড়ুন: প্রথম অকংগ্রেসি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে এই বিরল রেকর্ড গড়লেন মোদি]

লিখিত বিবৃতি প্রকাশ করে এবছরের স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের বিরোধীতা করেছে জঙ্গি নেতারা। প্রতি বছরই স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে জঙ্গি গোষ্ঠী কিংবা বিচ্ছিন্নতাবাদী শক্তিগুলি হুমকি দিয়ে থাকে। তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না এবারও। অতীতে রাজ্যে বিভিন্ন নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনগুলি ১৫ আগস্টকে কালা দিবস হিসেবে পালনের ডাক দিয়ে আসছিল। স্বাধীনতা দিবসকে ঘিরে প্রত্যেক বছরই কঠোর তল্লাশি জারি রাখে নিরাপত্তা বাহিনী। প্রত্যেকবারের মতো এবছরও স্বাধীনতা দিবসকে বয়কট করার ডাক দিয়েছে উত্তর-পূর্বের জঙ্গি সংগঠনগুলি। এবার একসঙ্গে ৬টি উগ্রপন্থী গোষ্ঠী ১৫ আগস্ট বয়কটের আহ্বান জানিয়েছে। এক লিখিত বিবৃতির মাধ্যমে আগামী ১৫ আগস্ট সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বনধ পালনের ডাক দিয়েছে ৬টি জঙ্গি গোষ্ঠীর নেতারা। গোপন আস্তানা থেকে মঙ্গলবারই এই বিবৃতি প্রচার করে ৬টি জঙ্গি সংগঠনের নেতৃত্ব।

সূত্রের খবর, জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির পক্ষ থেকে স্বাধীনতা দিবস বয়কটের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তৎপর হয়ে উঠে রাজ্যের নিরাপত্তা সংস্থাগুলি। একই সাথে উত্তর-পূর্বের অন্যান্য রাজ্যগুলির নিরাপত্তা সংস্থাগুলিও তৎপরতা শুরু করে দিয়েছে। তবে নখদন্তহীন অবস্থায় থাকা সংগঠনগুলির এই হুমকি চিঠি প্রচারের আলোয় আসতেই করা হয়েছে বলে মনে করছেন নিরাপত্তার সঙ্গে যুক্ত পদাধিকারীরা। যদিও এই মুহূর্তে কোন ঝুঁকি নিতে চাইছে না প্রশাসন। আন্তর্জাতিক সীমান্তে সতর্ক রাখা হয়েছে বিএসএফ জওয়ানদের। একইভাবে কেন্দ্রীয় এবং রাজ্য গোয়েন্দা সংস্থাগুলিও সব ধরণের অঘটন মোকাবিলায় তৎপরতা শুরু করে দিয়েছে। আরক্ষা দপ্তর সূত্রে জানা যায়, আসন্ন স্বাধীনতা দিবসকে ঘিরে ইতিমধ্যে বিভিন্ন থানা এলাকায় তল্লাশি অভিযান শুরু করে দিয়েছে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীগুলি। স্পর্শকাতর এলাকাগুলিতে মোতায়েন রাখা হয়েছে টিএসআর-সহ আধা সেনা জওয়ানদেরকে।

[আরও পড়ুন: মরণোত্তর অঙ্গদান বাধ্যতামূলক করতে বিল আনছেন বিজেপি সাংসদ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement