BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আইএস-র হয়ে দেওয়াল লিখন, মুম্বইয়ে আটক উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 6, 2019 7:30 pm|    Updated: June 7, 2019 3:52 pm

One detained for Islamic State graffiti on Navi Mumbai bridge

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইএস-এর মতাদর্শ দেওয়ালে লিখে ধরা পড়ল এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের নবি মুম্বইয়ের উড়ান এলাকায়। তিনদিন আগে নবি মুম্বইয়ের একটি ব্রিজের দেওয়ালে আইএস-এর নামে প্রশংসামূলক কথা চোখে পড়ে স্থানীয়দের। ওই দেওয়াল লিখনে প্রশংসা করা হয়েছিল আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদি ও লস্কর-ই-তইবা প্রধান হাফিজ সইদ-এরও। এরপরই পুলিশকে খবর দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বৃহস্পতিবার সকালে ওই দেওয়াল লেখার অভিযোগে উত্তরপ্রদেশের এক ব্যক্তিকে আটক করল মুম্বই পুলিশ।

[আরও পড়ুন- OMG! উচ্চতায় তাজমহলকে ছুঁয়ে ফেলবে এই আবর্জনার স্তূপ]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার নবি মুম্বইয়ের উড়ান এলাকার একটি ব্রিজে আইএস সংক্রান্ত দেওয়াল লিখন চোখে পড়ে স্থানীয়দের। পুলিশে খবর যেতেই নবি মুম্বইজুড়ে জারি হয় হাই অ্যালার্ট। তদন্তও শুরু করে পুলিশ। বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি বেশ কয়েকজনকে জেরাও করা হয়। এরপরই সন্ধান মেলে অভিযুক্তের। জানা যায়, উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি কয়েকদিন আগে উড়ান এলাকার খোপটা গ্রামে এসে বসবাস করতে শুরু করেছিল। মানসিক সমস্যা থাকায় তার চিকিৎসাও চলছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে ওই ব্যক্তি। তার মানসিক সমস্যা আছে বলেই প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। এখনও জেরা চলছে। খুব তাড়াতাড়ি তাকে গ্রেপ্তার করা হবে। ব্রিজের দেওয়ালে আইএস-র পাশাপাশি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির নামেও মেসেজ লিখেছিল ওই ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন- শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে মালেগাঁও বিস্ফোরণ মামলায় হাজিরা এড়ালেন সাধ্বী প্রজ্ঞা]

এপ্রসঙ্গে নবি মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনার সঞ্জয় কুমার বলেন, “ব্রিজের পিলারে আইএস-এর হয়ে দেওয়াল লেখার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। জেরায় নিজের অপরাধের কথা স্বীকারও করেছে সে। ঘটনাস্থল থেকে বেশ কয়েকটি বিয়ারের বোতল উদ্ধার হয়েছে। স্থানীয়দের জি়জ্ঞাসা করে জানা গিয়েছে, ওই এলাকায় সাধারণত স্থানীয় যুবকরা আড্ডা দিত। তাদের মধ্যে কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে