BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা কালে দুর্গাপজো সারুন নমঃ নমঃ করে’, নিদান বিজেপি শাসিত অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 13, 2020 11:10 am|    Updated: September 13, 2020 1:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহামারীর দাপটে জীবনই অনিশ্চিত, উৎসব পালন তো দূর অস্ত। তবু উৎসব মানেই তো সর্বদা জমায়েত, হইহট্টগোল নয়। দুর্গাপুজো (Durga Puja) যেমন বাঙালির প্রাণের উৎসব। জাঁকজমক থাক বা না থাক, ওই কটা দিন বাঙালির মন-প্রাণ আনন্দে ভরপুর হয়ে থাকে। কিন্তু চলতি বছর করোনাকে (Coronavirus) ঢাল করে এ রাজ্যের পুজো নিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ভুয়ো প্রচার চলছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পুলিশ তা নিয়ে কড়া ব্যবস্থা নিলেও, থামছে না কিছুতেই। এর নেপথ্যে বিজেপি-যোগও উঠে এসেছে। এবার বিজেপি শাসিত অসমের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মাই নিদান দিলেন, কোভিড পরিস্থিতিতে নমঃ নমঃ করে দুর্গাপুজো সারুন। অন্যবারের মতো পালন করতে গেলে বিপদ অবশ্যম্ভাবী! 

দিন কয়েক আগে এ বছর বাংলার দুর্গাপুজো নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ (WhatsApp)মেসেজ বেশ ভাইরাল হয়েছিল। তাতে লেখা ছিল, এবছর পুজোয় সারারাত ঘুরে প্রতিমা দর্শন বন্ধ। পঞ্চমী থেকে একাদশী পর্যন্ত বিকেল পাঁচটার পর থেকে জারি থাকবে নাইট কারফিউ। এছাড়া মণ্ডপে একসঙ্গে পাঁচজনের বেশি প্রবেশ করা যাবে না এবং প্রত্যেকের থার্মাল স্ক্রিনিং হবে। অষ্টমীর অঞ্জলিতে ফুল দেওয়া যাবে না। প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় শোভাযাত্রা বন্ধ রাখার কথাও উল্লেখ ছিল ওই ভুয়ো মেসেজে। কলকাতা পুলিশের তরফে সঙ্গে সঙ্গেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সেই মেসেজ যে ভুয়ো, তা স্পষ্টভাবে জানানো হয়।

এই মেসেজ ছড়িয়ে পড়তেই পুলিশকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন যে যারা এসব বিভ্রান্তিকর খবর রটাচ্ছে, তাদের যেন ‘কান ধরে ওঠবোস’ করানো হয়। সেইমতো পুলিশ তদন্তে নেমে গ্রেপ্তারও করে কয়েকজনকে। ধৃতেরা কবুল করে যে বিজেপির ইন্ধনেই এই মেসেজ ছড়ানো হয়েছিল। এ নিয়ে বেশ তোলপাড় পড়ে যায় রাজ্যে। দুর্গাপুজোর মতো আবেগে আঘাত করার অভিযোগ তোলেন কেউ কেউ।

[আরও পড়ুন: নাগরিকদের বাক স্বাধীনতা অবাধ বা সীমাহীন হতে পারে না, পর্যবেক্ষণ বম্বে হাই কোর্টের]

দুর্গাপুজোয় যে এবছর অন্যান্যবারের মতো একই ছবি দেখা যাবে না, তার আগাম আঁচ পাওয়া গিয়েছে ইতিমধ্যেই। মহামারী রুখতে সামাজিক দূরত্ববিধি, মাস্ক, স্যানিটাইজেশনের দাপটে তৈরি হবে নতুন আবহ, নতুন চিত্র। কিন্তু তাই বলে মণ্ডপ ঘুরে প্রতিমা দর্শন বন্ধ অথবা নাইট কারফিউ কিংবা অষ্টমীর অঞ্জলি ফুলবিহীন – এমন কোনও নির্দেশিকা জারি হয়নি এখনও। পুলিশই এখনও পুজোর বিধি স্থির করেনি। একাধিক বৈঠকের পর এ নিয়ে প্রতিবারের মতো এবারও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

[আরও পড়ুন: প্রতিহিংসার রাজনীতি!‌ ‌দিল্লি হিংসার ঘটনায় চার্জশিটে নাম যোগেন্দ্র যাদব–ইয়েচুরির]

তবে বাংলার বাইরে বাঙালিদের বসবাসের আধিক্য থাকা রাজ্য অসম কিন্তু সাফ জানিয়ে দিল, দুর্গাপুজোর এলাহী আয়োজন এবার বাদ দিতে হবে। বরং প্রথাটুকু মেনেই সারতে হবে পুজো। স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মার কথায়, ”জানি, বাংলা, অসমে দুর্গাপুজো একটা বড় ব্যাপার। কিন্তু অন্যবারের মতো এবারও উৎসব পালন করতে গেলে তা বিপদের কারণ হবে। জেলা প্রশাসনকে বলেছি, পুজো কমিটিগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে প্রথা মেনে পুজোটুকু সারা হোক, তার বেশি কিছু নয়।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement