৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এয়ার ইন্ডিয়ার উড়ন্ত বিমানে মৃত যাত্রী! প্রশ্নের মুখে বিমানবন্দরের থার্মাল স্ক্রিনিং

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 14, 2020 6:21 pm|    Updated: June 14, 2020 6:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাঝ আকাশে এয়ার ইন্ডিয়ার (Air India) বিমানের মধ্যেই মধ্যেই মারা গেলেন এক যাত্রী। ব্যক্তি লাগোস থেকে মুম্বইয়ে আসছিলেন বলে জানা যায়। যাত্রীর গায়ে জ্বর থাকা সত্ত্বেও তাকে কীভাবে উড়ানের অনুমতি দেওয়া হয় তাই নিয়েই উঠছে প্রশ্ন।

লাগোস (Lagos) থেকে মুম্বই আসছিলেন ৪২ বছরের এক ব্যক্তি। কিন্তু বিমানটি অবতরণের আগেই মাঝ আকাশে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন তিনি। জানা যায়, বিমানের মধ্যেই ওই যাত্রীকে জ্বরে কাঁপতে দেখেন অনেকে। তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হলে এয়ার ইন্ডিয়ার ক্রু-দের তিনি জানান যে, তাঁর ম্যালেরিয়া হয়েছে। শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিল বলে ওই যাত্রীকে ক্রু-রা অক্সিজেনও দিয়েছিলেন বলে দাবি সূত্রের। তবে এতেও শেষ রক্ষা হল না। বিমানের মধ্যেই প্রাণ হারালেন সেই যাত্রী। বিমানের মধ্যেই যাত্রীর মুখ থেকে রক্ত বের হয়ে আসে বলে জানা যায়। রবিবার ভোর ৩.৪০ নাগাদ মুম্বইয়ে অবতরণ করে সেই বিমান। তারপরেই প্রকাশ্যে আসে এই ঘটনা। আতঙ্ক ছড়ায় যাত্রীদের মধ্যে।

[আরও পড়ুন:২৮ দিনের গেরো! ভিন রাজ্য থেকে ফিরে করোনা বিধিতে ফেঁসে কয়েক লক্ষ বাঙালি]

তবে ব্যক্তির মৃত্যুকে ‘স্বাভাবিক’ বলেই দাবি করেছে এয়ার ইন্ডিয়া বিমান সংস্থা। যাত্রীর গায়ে জ্বর থাকার বিষয়টি অস্বীকার করেন তারা। এয়ার ইন্ডিয়া বিমান সংস্থার তরফ থেকে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়, লাগোস থেকে মুম্বইগামী বিমানে সফরের সময় এক যাত্রী প্রাণ হারান। সেই মৃত্যু স্বাভাবিক কারণেই হয়। জরুরি পরিস্থিতির জন্য ক্রু-দের সঙ্গে এয়ার ইন্ডিয়ার একজন চিকিৎসকও সবসময় থাকেন। তিনিও ওই যাত্রীকে বাঁচানোর জন্য প্রচুর চেষ্টা চালান। কিন্তু সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। মাঝআকাশেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। বিমানটি অবতরণের পর নিয়ম মেনে দেহটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। যাত্রী পরিজনেদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়।

[আরও পড়ুন:করোনা সন্দেহে ভরতি রোগীর মৃত্যুর পর লালারস পরীক্ষা নয়, নয়া সিদ্ধান্ত NRS-এর]

তবে এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান সংস্থা যাত্রীর মৃত্যুকে ‘স্বাভাবিক’ আখ্যা দিলেও তা মানতে রাজি নন বিমানের বাকি যাত্রীরা। সহযাত্রীর মৃত্যুতে আতঙ্কে তাঁরা। লাগোস বিমানবন্দরেই মৃতের থার্মাল স্ক্রিনিং নিয়ে যাত্রী একাধিক প্রশ্ন তুলেছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement